l

রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৯:১৯ অপরাহ্ন

বাংলার টাইগারদের বিশাল জয়

বাংলার টাইগারদের বিশাল জয়

এখানে শেয়ার বোতাম

আনামুল হকের প্রথম শতকের সৌজন্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে সহজেই ১৬০ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এই জয়ে ৫ ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে স্বাগতিকরা। বুধবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তৃতীয় ওয়ানডে।
খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেটে ২৯২ রান করে বাংলাদেশ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এটাই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান। এর আগে ২০০৯ সালে ডমিনিকার উইন্ডসর পার্কে ৭ উইকেটে ২৭৬ রান করে তারা। জবাবে ৩১ ওভার ১ বলে ১৩২ রানে অলআউট হয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে মাশরাফি বিন মুর্তজা ও সোহাগ গাজীর আঁটোসাটো বোলিংয়ে সুবিধা করতে পারেন নি লেন্ডল সিমন্স ও ক্রিস গেইল। দলীয় ১১ রানে সোহাগের বলে তামিম ইকবালের হাতে ধরা পড়ে সিমন্সের বিদায়ে শুরুতেই চাপে পড়ে অতিথিরা।
বাংলাদেশ সফরে নিজের ছায়া হয়ে থাকা গেইলকে হতাশ করেছেন মাশরাফি। বিপজ্জরক এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানকে উইকেটের পেছনে সহজ ক্যাচ দিতে বাধ্য করেন তিনি।
৩২ রানে দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর তৃতীয় উইকেটে মারলন স্যামুয়েলসের (১৬) সঙ্গে ৩১ রানের ছোট্ট একটা জুটি গড়েন ড্যারেন ব্রাভো। আগের ম্যাচে সিøপে ক্যাচ দিতে বাধ্য করা স্যামুয়েলকে এবার মুশফিকের ক্যাচে পরিণত করে স্বাগতিদের তৃতীয় সাফল্য এনে দেন সোহাগ।
পরের ওভারে ডোয়াইন স্মিথকে রানের খাতা খোলার আগেই বিদায় করা আব্দুর রাজ্জাক অতিথিদের আরো বড় ধাক্কা দেন ১৯তম ওভারে। সেই ওভারে তিন বলের মধ্যে ব্রাভো (২৮) ও ডেভন মাসকে (০) সাজঘরের প দেখান তিনি।
এর আগে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি। প্রথম ওয়ানডেতে অর্ধশতক করা তামিম ইকবাল (৫) ও নাঈম ইসলাম (৬) দ্রুত বিদায় নিলে ২১ রানে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে স্বাগতিকরা।
তৃতীয় উইকেটে অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে ১৭৯ বলে আনামুলের ১৭৪ রানের রেকর্ড জুটি স্বাগতিকদের ২ উইকেটে ১৯৫ রানের শক্ত ভিতের ওপর দাঁড় করায়।
পাওয়ার প্লের প্রথম ওভারের (৩৬) চতুর্থ বলে রামপলের বলে পুল করতে গিয়ে লেন্ডল সিমন্সের হাতে ধরা পড়ে মুশফিক (৭৯) বিদায় নিলে একটা ধাক্কা খায় বাংলাদেশ। মুশফিকের ৮৭ বলের ইনিংসটি ৮টি চার ও ১টি ছক্কা সমৃদ্ধ।
পাওয়ার প্লেতেই নাসির হোসেনকে (৪) ক্রিস গেইলের ক্যাচে পরিণত করে স্বাগতিকদের চাপে ফেলে দেন রামপল।
পঞ্চম উইকেটে মুমিনুল হকের সঙ্গে আনামুলের ৬৪ রানের জুটির সৌজন্যে আড়াইশ পেরুয় বাংলাদেশ। অভিষেকের পর প্রথম ওয়ানডেতে ব্যাট করার সুযোগ হয়নি মুমিনুলের। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে প্রথমবারের মতো ব্যাট করতে নেমে ২৯ বলে ৩১ রানের কার্যকর ইনিংস খেলেন তিনি।
এই জুটি গড়ার ফাঁকেই প্রথম ওয়ানডে শতকে পৌঁছান আনামুল (১২০)। তার ১৪৫ বলের ইনিংসটি ১৩টি চার ও ২টি ছক্কায় সাজানো।
৪৯ ওভারের দ্বিতীয় ও তৃতীয় বলে মুমিনুল-আনামুলকে সাজঘরে ফিরিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ৫ উইকেট নেন রামপল। ৪৯ রানে ৫ উইকেট নিয়ে তিনিই ওয়েস্ট ইন্ডিজের সেরা বোলার। এটি তার ৭২ ম্যাচের ক্যারিয়ারের সেরা বোলিং।
দুই ‘সেট’ ব্যাটসম্যান ফিরে গেলেও ৯ বলে মাশরাফি বিন মুর্তজা (১৮*) ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের (৩*) অবিচ্ছিন্ন ২৭ রানের জুটি স্বাগতিকদের তিনশ রানের কাছাকাছি নিয়ে যায়।
প্রথম ওয়ানডে ৭ উইকেটে জিতে ৫ ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে বাংলাদেশ।


এখানে শেয়ার বোতাম






পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
All rights reserved © 2021 shirshobindu.com