l

শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০৮:০৪ পূর্বাহ্ন

গার্মেন্টস নিয়ে সমস্যা সিএননের কাছে প্রধানমন্ত্রীর স্বীকার

গার্মেন্টস নিয়ে সমস্যা সিএননের কাছে প্রধানমন্ত্রীর স্বীকার

এখানে শেয়ার বোতাম

স্বদেশ জুড়ে: সাভারে ভবন ধসের আট দিন পর যুক্তরাষ্ট্রের টেলিভিশন সিএনএনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ভবন ধসের বহু প্রাণহানির প্রেক্ষাপটে দেশের রপ্তানি আয়ের প্রধান খাত তৈরি পোশাক শিল্পে সমস্যা রয়েছে। অকপটে তিনি একথা স্বীকার করে বলেন, এসব সমস্যা সমাধানে দ্রুত পদক্ষেপ নিচ্ছে তার সরকার। ঢাকা থেকে দেয়া প্রধানমন্ত্রীর এই সাক্ষাৎকার শুক্রবার প্রথম প্রহরে সম্প্রচার করা হয়।

সাভারে রানা প্লাজা ধসে চার শতাধিক পোশাক শ্রমিকের মৃত্যুর প্রেক্ষাপটে সিএনএন প্রধানমন্ত্রীর এই সাক্ষাৎকার নেয়। সিএনএন দাবি করেছে, সরাসরি সাক্ষাৎকার নিতে সিএনএন প্রতিবেদক ঢাকা আসতে চাইলেও বাংলাদেশ সরকার ভিসা দেয়নি। সাক্ষাৎকার নেয়ার সময় এই অভিযোগ তোলেন সিএনএনের আন্তর্জাতিক বিষয়ক প্রধান প্রতিবেদক ক্রিস্টিন আমানপৌর। তবে তা সরাসরি নাকচ করে শেখ হাসিনা বলেন, এটা সত্য নয়। আমার সরকার কোনো বিদেশি মিডিয়াকে বাধা দেয়নি।

এত বিপুল পরিমাণ প্রাণহানি বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের সমস্যার দিকটি চিহ্নিত করেছে বলে সিএনএনের প্রশ্নে স্বীকার করে শেখ হাসিনা বলেন, হ্যাঁ, কিছু সমস্যা রয়েছে। আর এজন্য শ্রমিক এবং ভবনে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকার ইতোমধ্যেই একটি কমিটি গঠন করেছে। এই কমিটি তাদের সুপারিশ মন্ত্রিপরিষদকে দেবে। ক্রমান্বয়ে পরিস্থিতির উন্নতি ঘটাতে আমরা একে একে কাজ করে যাবো। শ্রমিকদের জীবনমানের উন্নয়নে বাংলাদেশের সস্তা শ্রমবাজারের সুযোগ নেয়া বিদেশি কোম্পানিগুলোর দায়িত্বও স্মরণ করিয়ে দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, শ্রমিকদের সুরক্ষায় সরকার আন্তরিক। সাভারের ঘটনায় দায়ীদের কোনো ধরনের ছাড় দেয় হবে না।এজন্য সকল পদক্ষেপনেবে তার সরকার।সেই সঙ্গে তিনি বলেছেন, বিদেশি বিনিয়োগের জন্য অনকূল একটি পরিবেশ তৈরি করে দিয়েছে তার সরকার।

ঢাকা ও এর আশপাশে অসংখ্য পোশাক কারখানার জন্য মাত্র ১৮ জন পরিদর্শক থাকার তথ্য ক্রিস্টিন তুলে ধরলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা শুধু ওই সব পরিদর্শকদের ওপর ভরসা করে বসে নেই। রানা প্লাজা ধসের আগেই শ্রমিক অধিকার রক্ষায় সংশোধিত শ্রম আইন মন্ত্রিসভায় উত্থাপিত হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, শিগগিরই তা সংসদে পাস হবে।

সাভারের এই ধস নিয়ে সমালোচনার মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের মতো উন্নত দেশগুলোতেও কর্মক্ষেত্রে দুর্ঘটনার কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস রাজ্যে গত মাসে সারকারখানায় বিস্ফোরণে ১৪ জন নিহত হওয়ার কথাও বলেন তিনি। বিশ্বের যে কোনো প্রান্তে যে কোনো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এবিষয়ে আমরা কেউ আগে থেকে কোনো ধারণা করতে পারি না।

সাভারে ভবন ধসের একদিন আগে স্থানীয় প্রশাসন সেখানে পরিদর্শন করে ভবনটিকে ঝুঁকিপূর্ণ উল্লেখ করে কাজ বন্ধ রাখার সুপারিশ করেছিল, যা প্রধানমন্ত্রীকে বলেন ক্রিস্টিন। আপনি ঠিক বলেছেন, মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেন, কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে ওই দিন সকালে কারখানার মালিকরা শ্রমিকদেরকে ওই ভবনে ঢুকে কাজে যোগ দিতে বাধ্য করেছিলো। ভবন ধসে এত প্রাণহানির জন্য পাঁচটি কারখানার মালিক,ভবনের মালিক সোহেল রানাকে দায়ী করেন প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাদের ছাড় দেয়া হবে না।  আইন তার নিজের গতিতে চলবে। অপরাধী অবশ্যই অপরাধী, তাদের বিরুদ্ধে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হবে। আমি আপনাকে নিশ্চিত করতে চাই যে, জনগণের প্রতি এটাই আমাদের প্রতিশ্রুতি। কাজেই সরকার কোনো উদ্যোগ নেয়নি একথা ঠিক নয়।

আশুলিয়ার তাজরীন কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে শতাধিক শ্রমিকের মৃত্যুর কয়েক মাসের মধ্যে সাভারে ভবন ধসে এত প্রাণহানিতে বাংলাদেশের পোশাক শিল্প থেকে বিদেশিদের মুখ ফিরিয়ে নেয়ার আশঙ্কা করছেন অনেকে। তবে বাংলাদেশে সস্তা শ্রমের কারণে সেই আশঙ্কা বড় করে দেখছেন না প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশ থেকে যারা পোশাক কেনেন, বেশি দাম দেয়ার জন্য বিদেশি ক্রেতাদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি, যাতে ওই অর্থে শ্রমিকদের জীবনমানের উন্নতি ঘটে। কোনো ব্যবসায়ী অপরাধ করলে তাকে সরকার যেমন রেহাই দেবে না, তেমনি একটি দুর্ঘটনার কারণে পুরো ব্যবসায়ী সমাজকে দায়ী করা ঠিক হবে না বলে মন্তব্য করেন শেখ হাসিনা।


এখানে শেয়ার বোতাম






পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

All rights reserved © 2021 shirshobindu.com