l

মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ০৩:৩২ পূর্বাহ্ন

চলতি অর্থবছরে অধিক মুনাফায় ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ

চলতি অর্থবছরে অধিক মুনাফায় ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ

এখানে শেয়ার বোতাম

স্বদেশ জুড়ে: ইউনাইটেড এয়ার চলতি অর্থবছরের প্রথম নয় মাসে পূর্বের বছরের একই সময়ের তুলনায় ৬৫ শতাংশ বেশি মুনাফা করেছে।  কোম্পানির আর্থিক হিসাব অনুযায়ী, গত নয় মাসে (জুলাই’১২ হতে মার্চ’১৩ পর্যন্ত) কোম্পানির কর পরবর্তী মুনাফা হয়েছে ৮৯ কোটি ২৩ লাখ ১০ হাজার টাকা এবং শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ১.৭৭ টাকা।

এদিকে তৃতীয় প্রান্তিক (জানু’১৩-মার্চ’১৩) শেষে এ কোম্পানির কর পরবর্তী মুনাফা হয়েছে ১৯ কোটি ৬০ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ০.৩৯ টাকা। গত বছর একই সময়ে কোম্পানিটির কর পরবর্তী মুনাফা ছিল ১২ কোটি ২৯ লাখ ৩০ হাজার টাকা এবং শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.৪১ টাকা।  অর্থাৎ ৩ মাসে কোম্পানির কর পরবর্তী মুনাফা বেড়েছে ৭ কোটি ৩১ লাখ ১২ হাজার টাকা বা প্রায় ৩৮ শতাংশ। তবে ঘোষিত স্টক ডিভিডেন্ড ধরার পর গত প্রান্তিকে (জানুয়ারী-মার্চ’৯৩) শেয়ারপ্রতি আয় কমেছে ০.০২ টাকা।

গত বছর একই সময়ে কোম্পানির মুনাফা হয়েছিল ৩০ কোটি ৮৭ লাখ ২০ হাজার টাকা এবং শেয়ার প্রতি আয় হয়েছিল ১.০২ টাকা। অর্থাৎ গত নয় মাসে এ কোম্পানির মুনাফা বেড়েছে ৬৫.৪৩ শতাংশ এবং শেয়ার প্রতি আয় বেড়েছে ৪২.৩৭ শতাংশ।

কোম্পানিটি চলতি মাস থেকে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে পাইলট ও কেবিন ক্রু প্রশিক্ষণসহ বিমান পরিচালনা, রক্ষণাবেক্ষণ ও মেরামত সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বাণিজ্যিকভাবে প্রশিক্ষণ কোর্স শুরু করছে। এতে ফ্লাইট পরিচালনায় আয় অর্জন ছাড়াও কোম্পানির অন্যান্য খাতেও বাড়তি আয়ের নতুন ক্ষেত্র তৈরী হবে।

বিনিয়োগকারীরা বলছেন, কোম্পানিটি আর্ন্তজাতিক ও অভ্যন্তরীণ রুটে একের পর এক ব্যবসা সম্প্রসারণ করছে। সম্প্রতি ঢাকা বরিশাল রুটে এয়ারবাস দিয়ে ফ্লাইট চালু করেছে। আগামীতে ইশ্বরদী, কুমিল্লা, লালমনিরহাট এবং শমসের নগর রুটে ফ্লাইট চালু করবে। এছাড়া, এবছর আর্ন্তজাতিক রুটে কোম্পানিটি সিংগাপুর, মায়ানমারসহ  কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ফ্লাইট সম্প্রসারণ করবে। এতে ভবিষ্যতে কোম্পানিটির মুনাফা আরো বাড়বে। ফলে বছর শেষে কোম্পানিটি বিনিয়োগকারীদের বেশি লভ্যাংশ দিতে পারবে। এমন প্রত্যাশায় অনেক বিনিয়োগকারী শেয়ারটি ধরে রাখার পক্ষে এবং নতুন করে বিনিয়োগ করার পক্ষে অবস্থান নিচ্ছেন।

বাজার বিশ্লেষকদের মতে, কম পিই’র যেকোন বাণিজ্যিক কোম্পানির শেয়ারে বিনিয়োগ অনেক বেশি নিরাপদ ও ঝুঁকিমুক্ত। তাঁদের মতে, কম পিই’র শেয়ারে বিনিয়োগ কেবল নিরাপদ ও ঝুঁকিমুক্তই নয়, ভবিষ্যতে লাভবান হওয়ার সম্ভাবনাও অনেক বেশি।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বেসরকারী খাতে বৃহত্তম এ এয়ারলাইন্সের ভবিষ্যত অনেক উজ্জ্বল। ভবিষ্যতে কোম্পানিটির আয় বৃদ্ধির যেমন সম্ভাবনা বাড়ছে, তেমনি বিনিয়োগকারীদের বেশি ডিভিডেন্ড দেয়ারও সক্ষমতা তৈরী হচ্ছে। শেয়ারটির বর্তমান পিই মাত্র ৬.২০। তালিকাভুক্ত ২৪৫টি কোম্পানির মধ্যে বর্তমানে এটি সর্বনিম্ন পিই’র শেয়ার।


এখানে শেয়ার বোতাম






পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

All rights reserved © 2021 shirshobindu.com