l

রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৩:৪৭ পূর্বাহ্ন

ঈদকে সামনে রেখে দেশের অভ্যন্তরীণ এয়ার‌লাইন্সগুলো অধিক ভাড়া আদায়ের অভিযোগ

ঈদকে সামনে রেখে দেশের অভ্যন্তরীণ এয়ার‌লাইন্সগুলো অধিক ভাড়া আদায়ের অভিযোগ

এখানে শেয়ার বোতাম

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

স্বদেশ জুড়ে নিউজ: বাড়ি ফেরা মানুষের ভোগান্তি পিছু ছাড়ছে না। বাস-ট্রেনের পর এবার ঈদে ঘরে ফেরা আকাশপথের যাত্রীদের জিম্মি করে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করার অভিযোগ রয়েছে দেশের অভ্যন্তরীণ রুটে চলাচলকৃত তিনটি এয়ারলাইন্সের বিরুদ্ধে। দেশে বর্তমানে যে এয়ারলাইন্সগুলো খুব ধাপটের সাথে তারমধ্যে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ, রিজেন্ট এয়ারওয়েজ ও নভোএয়ার অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

দেশীয় প্রথা অনুযায়ী নাড়ির টানে মানুষ বাড়ি ফিরবেই। আর তাই সুযোগ বুঝে প্রতি রুটে দুই থেকে চার হাজার টাকা বেশি ভাড়া আদায় করেছে প্রতিটি এয়ারলাইন্স। সম্প্রতি এক অনুসন্ধানে এ তথ্যে উঠে এসেছে। তবে এয়ারলাইন্সগুলো বিষয়টি অস্বীকার করেছে। সারা বছর এয়ার টিকেটের জন্য মানুষের এত চাহিদা না থাকলেও ঈদের আগে সময় বাঁচাতে ও ভোগান্তির হাত থেকে রেহাই পেতে এখন অনেকেই আকাশ পথের যাত্রী হচ্ছেন। আর এই সুযোগের ষোলআনা ব্যবহার করছে এয়ারলাইন্সগুলো।

সংশ্লিষ্ট এয়ারলাইন্স সূত্রে জানা গেছে, ঈদের মৌসুমে অতিরিক্ত মুনাফা করতে ফ্লাইট সংখ্যাও বাড়িয়েছে কোনো কোনো এয়ারলাইন্স। এর মধ্যে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ ঈদ উপলক্ষে সৈয়দপুর, বরিশাল ও কক্সবাজার রুটে ফ্লাইট সংখ্যা বাড়িয়েছে। রিজেন্ট এয়ারওয়েজ ও নভোএয়ারও অতিরিক্ত মুনাফার জন্য ফ্লাইট সংখ্যা বাড়িয়েছে । জানা গেছে, এয়ারলাইন্সগুলোর অতি মুনাফা লাভের মানসিকতার কারণে ভোগান্তি পিছু ছাড়ছে না আকাশপথের যাত্রীদের।

খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে ৩ হাজার ৮’শ টাকা ভাড়া নিয়ে থাকে। ঈদের কারণে এই ভাড়া ৬ হাজার টাকা ছাড়িয়ে গিয়েছে। ঢাকা-কক্সবাজার রুটের ভাড়া ৪ হাজার ৭’শ ৭৫ টাকা।  সেখানে আদায় করা হচ্ছে সাড়ে ৭ হাজার টাকা। বরিশাল রুটের ভাড়া তিন হাজার টাকা। ঈদের জন্য নেওয়া হয়েছে প্রায় ৬ হাজার টাকা। একইভাবে রিজেন্ট এয়ারওয়েজও অস্বাভাবিক ভাড়া আদায় করেছে। রিজেন্ট ঢাকা-যশোর রুটে ৩ হাজার ২’শ টাকার ভাড়া ৫ হাজার টাকা করে নিয়েছে। সিলেট রুটেও ৩ হাজার ২’শ টাকার ভাড়া ৫ হাজার টাকা করে আদায় করেছে। ঢাকা-কক্সবাজার রুটে ৫ হাজার টাকার ভাড়া নিয়েছে ৭ থেকে ৮ হাজার টাকা করে। যাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি ভাড়া আদায়ে পিছিয়ে নেই নভোএয়ারও। ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে ৫ হাজার টাকার ভাড়া ৭ হাজার টাকা, সিলেটে ৩ হাজার ৭’শ টাকার ভাড়া সাড়ে ৫ হাজার টাকা, ঢাকা-কক্সবাজার রুটে ৫ হাজার টাকার ভাড়া ৮ হাজার টাকা এবং ঢাকা-যশোর রুটের ৩ হাজার ২’শ টাকার ভাড়া ৫ হাজার টাকা আদায় করছে।

টিকেট কিনতে গিয়ে যাত্রীরা বাস ও ট্রেন যাত্রীদের মতোই হয়রানির শিকার হয়েছেন। ঈদের সরকারি ছুটির আগেই এয়ারলাইন্সের টিকেট শেষ হয়ে গিয়েছে- এই অজুহাতে আদায় করা হচ্ছে অতিরিক্ত ভাড়া।  এক্ষেত্রে যাত্রীদের দুর্বলতার সুযোগ কাজে লাগিয়ে তিনটি এয়ারলাইন্স প্রতিটি রুটে যাত্রীদের কাছ থেকে দুই থেকে চার হাজার টাকা বেশি ভাড়া আদায় করছে।  এসব অনিয়ম দেখার কেউ নেই। এ ব্যাপারে দেশের বিমানবন্দরগুলোর অভিভাবক বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষও কিছু বলছে না।

 


এখানে শেয়ার বোতাম






পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

All rights reserved © 2021 shirshobindu.com