l

রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০১:০১ অপরাহ্ন

নির্দলীয় সরকার ছাড়া নির্বাচন হবে না

নির্দলীয় সরকার ছাড়া নির্বাচন হবে না

এখানে শেয়ার বোতাম

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শীর্ষবিন্দু নিউজ:  নির্দলীয় সরকারের অধীনে ছাড়া কোনো নির্বাচন হতে দেয়া হবে না বলে আবারো ঘোষণা দিলেন বিরোধী দলীয় নেতা খালেদা জিয়া। নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে জনমত গঠনে রংপুরে জনসভামঞ্চে পৌঁছেছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন। রোববার বিকাল পৌনে ৪টায় তিনি রংপুর জেলা স্কুল মাঠে স্থানীয় বিএনপির এই জনসভাস্থলে পৌঁছালে নেতা-কর্মীরা করতালি দিয়ে তাকে স্বাগত জানান।

খালেদা জিয়া মঞ্চে আসন গ্রহণ করার পর রংপুরের ঐতিহ্যবাহী ভাওয়াইয়া গান  ‘ওকি গাড়িয়াল ভাই’ এর সুরে প্রধান অতিথিকে বরণ করে নেয়া হয়। নীলফামারীর সন্তান কণ্ঠশিল্পী বেবী নাজনীন এই গান পরিবেশন করেন। নেতা-কর্মীদের ব্যাপক ভিড় ঠেলে খালেদা জিয়া গাড়িবহরকে মঞ্চের কাছাকাছি নিয়ে যেতে নিরাপত্তা কর্মীদের বেগ পেতে হয়। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ১৮ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতারা মঞ্চে খালেদা জিয়ার পাশে বসেন।

এর আগে বেলা ২টায় জেলা বিএনপির আহবায়ক মোজাফফর হোসেনের সভাপতিত্বে কোরআন তেলোয়াতের মধ্য দিয়ে জনসভার কার্যক্রম শুরু হয়। প্রথম বক্তব্য রাখেন ছাত্রদলের জেলা সভাপতি জহির আলম নয়ন। এরপর ইসলামী ছাত্র শিবিরের মহানগর সভাপতি মোশতাক আহমেদ বক্তব্য দেন। খালেদা জিয়া শেষবার রংপুর এসেছিলেন ১৯৯৬ সালের অগাস্টে। ওই সময় জাতীয় সংসদের উপ-নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে ভোট চাইতে গিয়েছিলেন তিনি। এরপর অষ্টম ও নবম সংসদ নির্বাচনের সময় রংপুরের ওপর দিয়ে লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, দিনাজপুর, পঞ্চগড় ও ঠাকুরগাঁও গেলেও রংপুরে কোনো জনসভা করেননি।

নির্দলীয় সরকারের দাবিতে চলমান আন্দোলনে গতি আনতে বিরোধী দলীয় নেতা ৮ জেলায় জনসভার যে কর্মসূচি শুরু করেছেন, এটি তার দ্বিতীয়। গত ৮ সেপ্টেম্বর নরসিংদীতে জনসভার মধ্য দিয়ে তিনি এই কর্মসূচি শুরু করেন। প্রধানমন্ত্রী থাকার সময় ২০০৬ সালের অক্টোবরে লালমনিরহাট যাওয়ার পথে মাত্র ঘণ্টার জন্য রংপুর থেমে কালেক্টরেট ভবনের ভিত্তিস্থাপন করেন তিনি। এর আগে বিরোধী দলীয় নেতা বগুড়া থেকে বেলা ১২টা ৫০ মিনিটে সড়কপথে যাত্রা শুরু করে বিকাল ৩টায় রংপুর সার্কিট হাউজে পৌঁছান।

রোববার বগুড়া থেকে রংপুরের উদ্দেশে রওনা হওয়ার সময় সার্কিট হাউজে তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, আমরা স্পষ্টভাষায় বলে দিতে চাই, নির্দলীয় সরকার ছাড়া নির্বাচন হবে না। এই দাবি জনগণের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে আমরা দেশের প্রতি অঞ্চলে জনগণের কাছে যাচ্ছি। জনসভা করছি। নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে জনমত গঠনে নরসিংদীর পর এবার রংপুরে জনসভা করবেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া।

আগামী নির্বাচনে মনোনয়ন পেতে আগ্রহীদের ছবি সম্বলিত ডিজিটাল ব্যানার ও প্ল্যাকার্ডও দেখা যায় এই পথের বিভিন্ন অংশে। বিরোধী দলীয় নেতাকে স্বাগত জানিয়ে এই পথে নির্মাণ করা হয় শতাধিক তোরণ। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মাহবুবুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিব দুদু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, জেলা বিএনপির আহবায়ক মোজাফফর হোসেন বিরোধী দলীয় নেতাকে ফুল দিয়ে অভ্যর্থনা জানান। বগুড়া থেকে রংপুর ১০০ কিলোমিটার সড়কের বিভিন্ন অংশে হাজার হাজার নেতা-কর্মী রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে ফুলের পাপড়ি ছিটিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

দীর্ঘদিন পর খালেদা জিয়ার এই সফর উপলক্ষে পুরো শহরকে সাজানো হয়েছে বর্ণিল সাজে। জেলার প্রবেশ পথ মর্ডান মোড় থেকে সেনানিবাস চেকপোস্ট পর্যন্ত  ছয় কিলোমিটার পথ বিরোধী দলীয় নেতার গাড়িবহরকে এগিয়ে নিয়ে যায় ৩০ জনের একটি অশ্বরোহী দল। সার্কিট হাউজ পর্যন্ত দুই কিলোমিটার পথে নানা সাজে সজ্জিত মেয়েরা নেচে-গেয়ে গ্রাম বাংলার বিভিন্ন চিরায়ত দৃশ্য ফুটিয়ে তোলার মাধ্যমে বিরোধী দলীয় নেতাকে তাদের শহরে অভ্যর্থনা জানান।

বিএনপি চেয়ারপার্সন অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের সময়ে বগুড়ায় কোনো উন্নয়ন হয়নি। যা কিছু হয়েছে, তা হয়েছে বিগত বিএনসপি সরকারের সময়ে। বিএনপি আগামীতে ক্ষমতায় এলে বগুড়াসহ সারাদেশের উন্নয়ন হবে। দেশের মানুষের জানমালের নিরাপত্তা বিধান আমরা করব। গণতন্ত্র রক্ষার চলমান আন্দোলনে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান বিরোধী দলীয় নেতা।

 

 


এখানে শেয়ার বোতাম






পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

All rights reserved © 2021 shirshobindu.com