রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৩১

জামায়াতের ডাকে বৃহস্পতিবার সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

জামায়াতের ডাকে বৃহস্পতিবার সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

এখানে শেয়ার বোতাম
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জামায়াতে ইসলামীকে সমাবেশ করার অনুমতি না দেওয়ায় প্রতিবাদের ভাষা হিসেবে বৃহস্পতিবার সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ঘোষণা করেছে তারা। বুধবার দুপুরে জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল রফিকুল ইসলাম খান সাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ ঘোষণা জানানো হয়। বিবৃতিতে বলা হয়, বিতর্কিত ট্রাইব্যুনাল বাতিল করে আটক জামায়াত ও বিরোধী দলের সব নেতা-কর্মীর মুক্তি, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুনর্বহাল ও জনদুর্ভোগ লাঘবের দাবিতে ২৭ জানুয়ারি এক বিবৃতিতে বুধবার ঢাকাসহ দেশব্যাপী প্রতিবাদ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছিল। কর্মসূচি পালনের অনুমতির আবেদন করা হলেও সরকার অনুমতি না দিয়ে যারা আবেদন করেছিল উল্টো তাদের গ্রেফতার করেছে। সরকারের এমন অন্যায় ও অগণতান্ত্রিক আচরণের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আটক ব্যক্তিদের অবিলম্বে মুক্তি দাবি করা হয়। হরতাল সফল করার জন্য রফিকুল ইসলাম সব শাখার প্রতি আহ্বান জানান। তবে গ্যাস, বিদ্যুৎ, হাসপাতাল, অ্যাম্বুলেন্স, ওষুধের দোকান, ফায়ার ব্রিগেট, কর্তব্যরত সাংবাদিক, সংবাদপত্র, সংবাদসংস্থা ও মিডিয়ার গাড়ি হরতাল কর্মসূচির আওতার বাইরে থাকবে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

ঢাকা মহানগর জামায়াতের নায়েবে আমির হামিদুর রহমান আযাদ এমপি বেসরকারি টেলিভিশনে প্রচারিত এক ভিডিও বার্তায় বলেন, কেয়ারটেকার সরকার পুনঃপ্রবর্তন, জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ, জনদুর্ভোগ লাঘব ও আটক নেতা-কর্মীদের মুক্তির দাবিতে দেশব্যাপী শান্তিপূর্ণ সমাবেশ ও মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা করেছিল জামায়াত।  আমরা আশা করেছিলাম, সরকার এই কর্মসূচি পালনে সহযোগিতা করবে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, এই সরকার ফ্যাসিবাদী আচরণ করে দমনপীড়নের উদ্দেশ্যে আমাদের সমাবেশ পণ্ড করে দিয়েছে। তিনি আরো বলেন, আমাদের এই গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নেয়াসহ সরকারের অন্যায়, অবিচার ও স্বৈরাচারি আচরণের প্রতিবাদে আগামীকাল সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালিত হবে।

রাজধানীর বায়তুল মোকারমের উত্তর গেটে বুধবার বিকেল তিনটায় সমাবেশ করতে চেয়েছিলো জামায়াত। সমাবেশের অনুমতি চেয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাছে আবেদনও করেছিলো তারা। কিন্তু বুধবার দুপুর পর্যন্ত ওই সমাবেশ আয়োজনের কোন লিখিত বা মৌখিক অনুমতি না পাওয়ায় দলটির হাই কমান্ড হরতালের সিদ্ধান্ত নেয়।

পুরো রাজধানীজুড়ে মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ ও অন্যান্য আইন-শৃংখলা বাহিনীকে, পাশাপাশি সাদা পোশাকে রয়েছে কয়েক হাজার গোয়েন্দা সংস্থার সদস্য। রাজধানীর বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে জামায়াত-শিবিরের সমাবেশকে ঘিরে নিরাপত্তার নামে চলছে অঘোষিত ‘রেড অ্যালার্ট’।


এখানে শেয়ার বোতাম
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  






পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
All rights reserved © 2021 shirshobindu.com