বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৯:০২

চরম সংকটে পড়তে যাচ্ছে এনএইচএস

চরম সংকটে পড়তে যাচ্ছে এনএইচএস

এনএইচএস এর আরো কঠিন সময় আসছে সম্মুখে। একদিকে সরকারের ব্যয় সংকোচন, অন্যদিকে রোগীদের চাহিদা বৃদ্ধি সব মিলিয়ে ইতোমধ্যে এনএইচএস এর বিভিন্ন হাসপাতাল কঠির সময় পার করছে। ফলে রোগীরা পর্যাপ্ত পরিমাণ সেবা প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বৃহস্পতিবার দ্য কিংস ফান্ড প্রকাশিত এক প্রতিবদেনে বলা হয়েছে দিন দিন এনএইচএর খরচ যে হাওে বাড়ছে। সরকারের নানান সংস্কারের ফলে বড় ধরনের চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে যাচ্ছে এনএইচএস। একদিকে বাড়ছে চিকিৎসা খরচ অন্যদিকে চলছে সরকারের ব্যয় সংকোচনের প্রক্রিয়া। চলতি বছওে এনএইচএস এর জন্য বাজেট ১০৪ বিলিয়ন পাউন্ড  হলেও আগামী বছর খরচ আরো বাড়বে। কিন্তু এরি মধ্যে সরকার চায় আগামী ২০১৫ সালের মধ্যে প্রায় ২০ বিরিয়ন পাউন্ড সঞ্চয় করতে। ইতোমধ্যে সরকারের নেয়া এ পদক্ষেপ কাজ করতে শুরু করেছে। এরিমধ্যে সরকারের সঞ্চয়ে জমা হয়েছে ৫.৮ বিলিয়ন পাউন্ড। সরকার সংকোচন নীতির মাধ্যমে ইতিবাচন চিন্তা করলেও এতে কওে এনএইচএস চরম সংকটে পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।  ইতোমধ্যে কিছু কিছু এনএইচএস ট্রাস্ট সংকটের মধ্যে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। একদিকে রোগীদের চাহিদা বৃদ্ধি অন্যদিকে সরকারের ব্যয় সংকোচন নীতি। দু’টো মিলে সংকটময় পরিস্থিতিতে এখন বৃটেনের স্বাস্থ্যসেবা। অন্যদিকে সরকার বলছে আগামী দুই বছর পাবলিক পে রাইস থেকে ১ ভাগ কওে কেটে রাখা হবে। যাতে করে বছরে কমপক্ষে ৫ মিলিয়ন পাউন্ড যুক্ত হবে এনএইচএস এর সাথে। কিন্তু এর প্রতিবাদ অব্যহত রেখেছে এনএইচএসসহ ট্রেড ইউনিয়গগুলো। তারা সরকারের এ সিদ্ধান্ত চরম বিতর্কিত। এনএইচএস এর সিনিয়র কর্মকর্তারাও বলছেন এ পরিস্থিতিতে ব্রিটেনের স্বাস্থ্যসেবার মান ধওে রাখা সম্ভব হবে না।
বলা হচ্ছে সরকারের ব্যয় সংকোচনের নামে ভূল সিদ্ধান্তের কারণে ইতোমধ্যে এনএইচএস এর চিকিৎসা সেবা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। কিছু কিছু ঔষধ সরবরাহ বন্ধ করে দেয়ায় রোগীদেও দূর্ভোগ বেড়েছে। ফলে চলমান এ সংকট থেকে উত্তরনের পথ খুঁজছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা মনে করছেন এর জন্য মানুষের মতামত সংগ্রহ করা উচিত।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
All rights reserved © shirshobindu.com 2012-2024