মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৫:২৯

এবার মাংস কেলেঙ্কারিতে নেসলে

এবার মাংস কেলেঙ্কারিতে নেসলে

/ ১৩
প্রকাশ কাল: শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৩

 

ঘোড়ার মাংসকে গরুর মাংস বলে বিক্রি করার অভিযোগ নিয়ে ইউরোপজুড়ে তুলকালাম চলছে। এই কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়া প্রতিষ্ঠানের তালিকায় সর্বশেষ অভিযুক্ত হিসেবে যুক্ত হয়েছে বিশ্বের বৃহত্তম খাদ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান নেসলের নাম। খাদ্যপণ্যে ঘোড়ার মাংসের অস্তিত্ব আবিষ্কার হওয়ার পর নেসলে বাজার থেকে বেশ কিছু পণ্য সরিয়ে নিয়েছে। বিবিসি জানায়, সুইজারল্যান্ডে নেসলের সদর দপ্তর থেকে প্রকাশ করা এক বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠানটি বলছে, গরুর মাংসের র‌্যাভিওলি, টরটেলিনি এবং ল্যাসানিয়া-এই তিন ধরনের খাবার তারা বাজার থেকে তুলে নিয়েছে। এর আগে এক পরীক্ষায় ধরা পড়ে যে এই খাবারগুলোতে শতকরা এক ভাগেরও বেশী ঘোড়ার মাংসের অস্তিত্ব রয়েছে। নেসলের একজন মুখপাত্র বলছেন, একটি জার্মান সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান থেকে পাঠানো খাদ্যদ্রব্যে এই সমস্যাটি ধরা পড়েছে। এখন তারা গরুর মাংস ব্যাবহার করা হয় এমন প্রতিটি খাদ্যপণ্য তারা পরীক্ষা করে দেখছে। একদিন আগেই নেসলে ঘোষণা দিয়েছিলো যে ইউরোপজুড়ে তুলকালাম বাধানো ঘোড়ার মাংস কেলেঙ্কারি থেকে মুক্ত তারা। আর তার একদিন পরেই এই কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে বাজার থেকে তাদের পণ্য তুলে নেয়ার ঘোষণা প্রমাণ করছে যে গরুর মাংসের নাম করে ঘোড়ার মাংস বিক্রির ঘটনা যতোটা ধারণা করা হয়েছিলো তার চাইতেও ব্যাপক। সমালোচকরা বলছেন, এর দ্বারা একটি বিষয় স্পষ্ট হচ্ছে যে খাদ্য শিল্প কতোটা অনিয়ন্ত্রিত এবং ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এখন পর্যন্ত ইউরোপের ১২টি দেশে ঘোড়ার মাংসকে গরুর মাংস বলে চালানোর প্রমাণ পাওয়া গেছে। এরমধ্যে নেসলের উৎস দেশ সুইজারল্যান্ডও রয়েছে। সেখানে নির্ভেজাল এবং স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত অর্গানিক খাবারের জন্য বিখ্যাত সুইস প্রতিষ্ঠান কূপ সোমবার বাজার থেকে অন্তত ৯টি খাদ্যপণ্য সরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছে। সুইস কর্তৃপক্ষ এই প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে অবহেলার অভিযোগ আনতে যাচ্ছে বলেও খবরে জানা যাচ্ছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
All rights reserved © shirshobindu.com 2021