সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৪:৩৬

সংলাপের আহবানে দুই নেত্রীকে এরশাদের চিঠি

সংলাপের আহবানে দুই নেত্রীকে এরশাদের চিঠি

/ ৪ বার পড়া হয়েছে
প্রকাশ কাল : বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল, ২০১৩

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

স্বদেশ জুড়ে ডেস্ক: চলমান রাজনৈতিক সঙ্কট অবসানে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গত সোমবার প্রধানমন্তী শেখ হাসিনা ও প্রধান বিরোধী দলীয় নেত্রী খালেদা জিয়াকে চিঠি পাঠিয়েছেন। দেশের এই ক্রান্তিকালে একইসঙ্গে বসার আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও বিরোধীদলীয় নেত্রীকে চিঠিতে তিনি বলেন, “আমি আজ বয়সের শেষ প্রান্তে এসে পৌঁছেছি। এই দিগন্তে দাঁড়িয়ে ভারাক্রান্ত মনে আপনাদের কাছে একান্ত প্রার্থনা জানাই- এই মুহূর্তে কোনো হিংসা বা জেদ নয়, ত্যাগের মহিমায় উজ্জ্বল হয়ে এগিয়ে আসুন সঙ্কট মোচনের আলোচনায়। শান্তির পথে উদ্যোগ নিয়ে ইতিহাসে সমৃদ্ধ হয়ে থাকুন। জনগনের আস্তা ওঠুট রাখুন।

যাদের সম্মিলিত আন্দোলনে প্রায় দুই যুগ আগে ক্ষমতা ছাড়তে বাধ্য হওয়া স্বৈরশাসক নামে উপাধিত সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ আহবান জানান বাংলাদেশের প্রধান দুই রাজনৈতিক নেত্রীর উদ্দেশে। এরশাদ তার চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধেশ্যে লিখেন- “দেশে এখন যে পরিস্থিতি চলছে এবং জাতির সামনে যে দুর্যোগ বিরাজ করছে, তা নিয়ে আপনি কতটা বিচলিত হতে পারেন, আমি তাও অনুভব করি। আমি একান্তভাবে বিবেকের তাড়নায় দেশের এই ভয়াবহ ক্রান্তিলগ্নে আপনার প্রতি সবিনয় অনুরোধপূর্বক কিছু বক্তব্য পেশ করতে চাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনার দায়িত্বের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, “আপনার অবস্থান থেকে এই মুহূর্তে আপনি শান্তির উদ্যোগ গ্রহণ করতে পারেন। বর্তমানে দেশ ‘ক্রান্তিকাল’ অতিক্রম করছে উল্লেখ করে তা থেকে উত্তরণে সব রাজনৈতিক নেতাকে নিয়ে আলোচনায় বসার উদ্যোগ নিতে প্রধানমন্ত্রীকে আহবান জানান এরশাদ। একই উদ্যোগ বিরোধী নেতার কাছেও প্রত্যাশা কার আমি।আপনি বিরোধী নেতাকে ডাকুন, আমাকে ডাকুন, সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী সব দলের নেতাদের ডাকুন এবং দেশের বরেণ্য ও নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গকেও ডাকুন। আলোচনায় বসুন।  আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের অন্যতম নেতা এরশাদের আশা, প্রধানমন্ত্রী আলোচনায় ডাকলে সবাই সাড়া দেবেন। চিঠিতে এরশাদ বলেন, শেখ হাসিনাকে শুধু প্রধানমন্ত্রী হিসেবেই নয়, জাতির জনকের কন্যা ও ধর্মপ্রাণ মুসলিম নারী হিসেবে শ্রদ্ধা করেন তিনি।

বিএনপি চেয়ারপারসনকে পাঠানো চিঠিতে এরশাদ বলেন, দিশেহারা জাতি একান্তভাবে কামনা করছে, আপনারা প্রধান দুটি দলের দুই সম্মানিত নেত্রী একত্রে বসুন। আমিও আপনাদের পাশে থাকব। যে কারণেই হোক না কেন, দেশে এখন বিপর্যয় নেমে এসেছে। তার ত্রুটি-বিচ্যুতির কথা না হয় এই মুহূর্তের জন্য ভুলে গেলাম।জনগণের শান্তি, নিরাপত্তা, দেশের অর্থনীতি, গণতন্ত্রের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আসুন আমরা সবাই একসঙ্গে বসে এই পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণের উপায় বের করি। আর সেই উদ্যোগটা আসুক সবার আগে আপনারই পক্ষ থেকে। এরশাদ বিএনপি চেয়ারপারসনকে বলেন, আপনার দেশপ্রেমও আমার কাছে প্রশ্নাতীত। আপনি দেশ পরিচালনা করছেন এবং আল্লাহপাক চাইলে আগামীতেও দেশ পরিচালনা করবেন। এই মুহূর্তে আপনার জনপ্রিয়তা প্রমাণে আপনাকেই সবার আগে এগিয়ে আসেতে হবে।

সংসদে আসন সংখ্যার বিচারে রাজনীতিতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির পর তৃতীয় শক্তি হল সাবেক সামরিক শাসক এরশাদের দল জাতীয় পার্টি। আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটে থাকলেও তা ‘যথাসময়ে’ ছাড়ার ঘোষণাও দিয়ে রেখেছেন এরশাদ। আগামী নির্বাচন এককভাবে করার কথাও বলে আসছেন জাগপা সভাপতি।

তার মতে, স্বাধীনতাত্তোর বাংলাদেশে এত বড় রাজনৈতিক সঙ্কট আর আসেনি। চিঠি পাঠানোর প্রেক্ষাপট বর্ণনা করে দুই নেত্রীর কাছে একই ভাষায় সংলাপের আবেদন জানান জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান। আসুন এবার বিগত দিনের সকল তিক্ততা মুছে দিয়ে এবং ভুলে গিয়ে দেশে বিরাজমান সংকট উত্তরণের উপায় খুঁজে বের করি। দেশে আজ বিনিয়োগ ব্যাহত হচ্ছে। বিদেশীরা মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে। বাংলাদেশের পণ্য বিদেশীরা নিতে অনীহা প্রকাশ করছে । দেশের গরীব মেহনতী দুস্থ জনগনের কথা চিন্তা করে  ক্ষমতায় যাওয়া এবং ক্ষমতায় থাকা- এই ‘জেদ’ থেকে বেরিয়ে আসতেও দুই নেত্রীর প্রতি আহবান জানান সাবেক প্রেসিডেন্ট এরশাদ।

 






পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
All rights reserved © 2021 shirshobindu.com