বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ০২:১৮

টেলিগ্রাফের ইরানি খবর মাত্রই সাবধান

টেলিগ্রাফের ইরানি খবর মাত্রই সাবধান

/ ৭ বার পড়া হয়েছে
প্রকাশ কাল : সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০১৩

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আরাফাত আলী: এই ইন্টারনেট জমানায় অনলাইনে ছড়ানো খবরের বিষয়ে অনেক কিছু খেয়াল রাখতে হবে আপনাকে। তার একটা হচ্ছে, যদি কখনো দেখেন ‘পশ্চিম-শত্রু’ বলে ধার্য কোনো দেশের বিষয়ে ‘বেসম্ভব’ ধরণের খবর আসছে, আর সেই খবরের সূত্র হিসেবে আমেরিকার ফক্স নিউজ কিম্বা বৃটেনের টেলিগ্রাফের কথা বলছে লোকেরা। তবে ধরে নেবেন, খবরটি মিথ্যা, অথবা বিভ্রান্তি তৈরির জন্য বিকৃত করা হয়েছে খবরটি। আগে এমন অনেক উদাহরণ আছে। আর সবশেষ উদাহরণ হিসেবে নিতে পারেন ‘ইরানি টাইম মেশিন’ আবিস্কারের খবরটিকে।

‘খবর’টি প্রথম দেয় বৃটিশ দৈনিক টেলিগ্রাফ।  গত ১০ এপ্রিল খবরটি প্রথম দেয় এরা, বৃটিশ মান সময় রাত আটটার পরে। সূত্র হিসেবে তারা আধা-সরকারি ইরানি বার্তা সংস্থা ফার্স’কে উল্লেখ করে।

কিন্তু ফার্স বা অন্য কোনো ইরানি সংবাদ মাধ্যমে আমরা খবরটি পাইনি। কিম্বা নির্ভরযোগ্য অন্য কোনো সংবাদমাধ্যমেও নয়। আর ইরানের বিষয়ে টেলিগ্রাফের ‘খবর’-এ নির্ভর করার প্রশ্নই ওঠেনা। ফলে এমন ‘বেসম্ভব’ অর্জনের ‘খবর’টি দেয়া হয়নি।

তবে খবরটি এসেছে বাংলায়। বৃটিশ দৈনিক টেলিগ্রাফকে উদ্ধৃত করে সম্প্রতি ঢাকার দৈনিক কালের কন্ঠ লিখেছে, ‘‘ইরানের এক বিজ্ঞানী এমন একটি যন্ত্র উদ্ভাবনের দাবি করেছেন, যা ব্যবহার করে কোনো ব্যক্তি তার ভবিষ্যৎ সম্পর্কে জানতে পারবে। পাঁচ থেকে আট বছর পরে কী হবে, সে সম্পর্কে প্রায় নির্ভুল তথ্য দেবে এ যন্ত্র। আলী রাজেগি নামের ওই বিজ্ঞানী যন্ত্রটির নাম দিয়েছেন ‘দি অ্যারিয়ায়েক টাইম ট্রাভেলিং মেশিন।’’

কালের কন্ঠ অনুবাদ করেছে এভাবে, ‘‘রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা ফারসকে রাজেগি নিজেই এ কথা জানিয়েছেন। রাজেগি (২৭) বলেন, ‘যন্ত্রটি আপনাকে ভবিষ্যতে নিয়ে যাবে না বরং ভবিষ্যৎকে আপনার কাছে নিয়ে আসবে। এটি একটি ব্যক্তিগত কম্পিউটারের খাপের মধ্যে খুব সহজেই এঁটে যাবে এবং ব্যবহারকারীর পরবর্তী পাঁচ থেকে আট বছরের জীবন সম্পর্কে বলে দিতে পারবে। অনেকগুলো জটিল গণনাপ্রণালীর মাধ্যমে যন্ত্রটি ৯৮ শতাংশ সঠিক তথ্য দিতে সক্ষম। ভবিষ্যৎ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য প্রিন্ট আকারে পাওয়া যাবে।’’

কালের কন্ঠের অনুবাদে বলা হয়, ‘‘রাষ্ট্রীয় সংস্থা কৌশলগত উদ্ভাবন কেন্দ্রে যন্ত্রটির নিবন্ধন করেছেন রাজেগি। তিনি ওই সংস্থার ব্যবস্থাপনা পরিচালক। এ পর্যন্ত বিভিন্ন ধরনের ১৭৯টি জিনিস উদ্ভাবন করেছেন তিনি।’’

‘খবর’টি জানা হলো। এবার জেনে নিন, ‘টাইম মেশিন আবিস্কারে’র খবরটি মিথ্যা। কারণ, একে সত্য বলে কোনো প্রমাণ নেই।

খবরটি ইরানি কোনো সংবাদ মাধ্যমে না আসাই শুধু নয়। আরো ব্যাপার আছে। দ্বিতীয়ত কালের কন্ঠ যাকে অনুবাদ করেছে ইরানের রাষ্ট্রীয় সংস্থা ‘কৌশলগত উদ্ভাবন কেন্দ্র’ নামে- যাকে টেলিগ্রাফ লিখেছে ‘সেন্টার ফর স্ট্রাটেজিক ইনভেনশনস’, এই নামে কোনো প্রতিষ্ঠান নেই ইরান সরকারের।

টেলিগ্রাফের পরদিন ইরানি বেসরকারি বার্তা সংস্থা মেহের নিউজ একটি সাক্ষাতকার ছেপেছে এই রাজেগি ভদ্রলোকের। সেখানে জানা যাচ্ছে যে, এই ‘কৌশলগত উদ্ভাবন কেন্দ্র’টি রাজেগির নিজস্ব ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান। আর তার আবিস্কৃত জিনিসটি একটা কম্পিউটার প্রোগ্রাম যাতে বেশ কিছু সূত্র পূর্বনির্ধারিত করা আছে। আপনি তাতে কোনো একটা পরিস্থিতির বিবরণ প্রবেশ করালে এই প্রোগ্রাম বিপরীতে আপনাকে আপনার করণীয় বলে কিছু লেখা প্রিন্ট দেবে। এইটুকুই।

রাজেগীর এই ‘কৌশলগত উদ্ভাবন কেন্দ্র’ নামের কোম্পানিটির পুরনো একটা বিবরণ ছিল ফারস নিউজের ওয়েবসাইটে। সেখান থেকেই টেলিগ্রাফের এই ‘টাইম মেশিন’ আবিস্কার।

 






পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
All rights reserved © 2021 shirshobindu.com