বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ০২:৪৩

আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন কামরান

আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন কামরান

/ ৭ বার পড়া হয়েছে
প্রকাশ কাল : শনিবার, ২৭ এপ্রিল, ২০১৩

আগামী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে কারাবন্দী থেকে বর্তমান নির্বাচিত মেয়র বদর উদ্দিন কামরানকেই প্রার্থী ঘোষণা করে আওয়ামী লীগের নেতারা। শুক্রবার রাতে সিলেট নগরীর গুলশান সেন্টারে মহানগর আওয়ামী লীগের কর্মী সভায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বর্তমান মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানকে আসন্ন নির্বাচনের প্রার্থী ঘোষণা করেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, দেশের অর্থনৈতিক উন্নতি ও অগ্রগতি ব্যাহত করতে বিএনপি-জামায়াত হরতাল দিয়ে নৈরাজ্য ও সন্ত্রাস করছে। তারা দেশের সঙ্গে শত্রুতা করছে। তিনি বলেন, রাজনীতি সহিংসতার নয়, সহিঞ্চুতার। কিন্তু বর্তমান বিরোধী দল বিএনপি, শিবির-জামায়াত রাজনীতিকে সহিংস করে তুলেছে। খালেদা জিয়াকে জামায়াতের নেত্রী উল্লেখ করে তিনি বিএনপি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনাদের নেত্রী দেশকে কোথায় নিয়ে যাচ্ছেন। এভাবে চলতে থাকলে আপনাদের পরিণতি কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে। তিনি বিরোধী দলের সহিংস কর্মসূচি প্রতিহত করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

এ সময় কর্মীদের উদ্দেশ্যে অর্থমন্ত্রী বলেন, শুধু মেয়র নয়, প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে যেন আমাদের দলের পুরুষ ও মহিলা কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়-সে লক্ষ্যে কাজ করতে হবে। এদিকে, সিটি কর্পোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডের মধ্যে কমপক্ষে ৮টি ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের কাউন্সিল না হওয়ায় দ্রুত সময়ে তা করে নেওয়ার দাবি তোলেন স্থানীয় নেতাকর্মীরা। এর প্রেক্ষিতে দ্রুত কাউন্সিল করে নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন নেতারাও।

মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সভাপতিত্বে ও মহানগর সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদের পরিচালনায় কর্মী সভায় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রূপালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. আহমদ আল-কবির, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুজ জহির চৌধুরী সুফিয়ান সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ ছাড়াও অন্যান্য আওয়ামী নেতৃবৃন্দ।

 

 

কর্মীসভায় সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিএনপির প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেন, আমরা প্রার্থী দিচ্ছি। সামর্থ থাকলে হরতাল নৈরাজ্য না করে আপনারাও প্রার্থী দেন। মাঠে লড়াই হবে। দেখা যাবে কে হারে, কে জিতে।
মুহিত বলেন, তাজরীন পোশাক কারখানার অগ্নিকান্ডের ক্ষতি পুষিয়ে উঠার আগেই সাভারে যে বিপর্যয় নেমে এসেছে তা দেশের অর্থনীতিতে প্রভাব ফেলবে। এছাড়া দেশের অর্থনীতি ধ্বংসের জন্য বিশেষ করে জামায়াত-শিবির প্রধান ভূমিকা পালন করছে।
তিনি বিএনপিকে অন্তবর্তী সরকারের রূপরেখা নিয়ে আলোচনায় আসার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, এখন নির্বাচনে জালিয়াতির কোন সুযোগ নেই। নির্বাচন কমিশন অত্যন্ত নিরপেক্ষতার সঙ্গে কাজ করছে।
সাভারে উদ্ধার কাজে নিয়োজিত ও সাধারণ মানুষের আন্তরিকতার প্রশংসা করে তিনি বলেন, মানুষের দেশপ্রেম প্রশংসার দাবিদার। সদিচ্ছায় তারা কোনরকম যন্ত্রপাতি, হেলমেট ছাড়াই উদ্ধার কাজে নেমে পড়েছে।






পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
All rights reserved © 2021 shirshobindu.com