রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১২:১৯

ভারতের প্রথম নারী সেনার আত্মহত্যা

ভারতের প্রথম নারী সেনার আত্মহত্যা

/ ৪৯
প্রকাশ কাল: শুক্রবার, ১৭ মে, ২০১৩

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

২৭ বছর বয়সী ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রথম মহিলা জওয়ান শান্তি টিগ্‌গা মঙ্গলবার আত্মহত্যা করেছেন। এই সেনা জওয়ান উত্তরবঙ্গে নর্থ-ফ্রন্টিয়ার রেলওয়েতে কর্মরত ছিলেন। শান্তিদেবীর মৃত্যুতে পুলিশের বিরুদ্ধে মানসিক হয়রানি এবং স্থানীয় রেল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে চিকিৎসায় গাফলতির অভিযোগ তুলেছে কংগ্রেস ও আদিবাসী বিকাশ পরিষদ। সেনাবাহিনীর প্রথম মহিলা জওয়ান শান্তিদেবীকে গত ৯ই মে রাতে অপহরণ করা হয় বলে নিজেই অভিযোগ করেছিলেন তিনি।

পরের দিন সকালে চালসায় তার বাড়ি থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার দূরে একটি নির্মীয়মাণ ওয়াচ টাওয়ারে হাত-পা বাঁধা অবস্থায়  তাকে উদ্ধার করেন স্থানীয় গ্রামবাসী। তার পকেট থেকে পায়া যায় মুখ্যমন্ত্রীকে লেখা অদ্ভুত এক হুমকি চিঠি। বেসরকারি অর্থলগ্নি সংস্থার বাড়বাড়ন্ত  নিয়ন্ত্রণ এবং আমানতকারীদের টাকা ফেরত দেয়ার দাবি জানিয়ে লেখা ওই চিঠিটি কি করে শান্তিদেবীর পকেটে এল তদন্তকারীদের প্রশ্ন জাগে তা নিয়েই।

পুলিশের জেরায় তার অসংলগ্ন কথাবার্তায় আদৌ তাকে অপহরণ করা হয়েছিল কি না তা নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিয়েছিল। জেরার বহর বাড়তে থাকে। বাড়তে থাকে পুলিশের সন্দেহও। এই অবস্থায়  শান্তিদেবীর বর্তমান কর্মস্থল এনই (এফ) রেল কর্তৃপক্ষ তাকে ভর্তি করে দেন আলিপুরদুয়ারের রেল হাসপাতালে। শান্তিদেবীর বাড়িতেও মোতায়েন করা হয় পুলিশ।

কিন্তু গত দু-দিন ধরে মানসিক ভাবে ক্রমেই ভেঙে পড়ছিলেন তিনি। তার ভাই, জয়প্রকাশ টিগ্‌গা বলেন, পুলিশের জেরায় দিদি বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন। ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন। বার বারই সে কথা বলেছেন আমাদের। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশেরও অভিমত, সম্ভবত তার জেরেই এদিন আত্মহত্যা করেন শান্তি টিগ্‌গা। তার ‘অপহরণ’ নিয়ে সন্দিহান ছিল পুলিশ। খোঁজ চলছিল, বাজারে তার দেনার বহর নিয়েও। জেরা-জিজ্ঞাসাবাদে জেরবার মহিলা, পরিজনদের কাছে বলেও ফেলেছিলেন, ও! হাঁফিয়ে উঠেছি। আর পারছি না।

পুলিশ জানায়, বিকাল চারটে নাগাদ স্নান করতে গিয়েছিলেন শান্তিদেবী। দীর্ঘক্ষণ কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে তার বড় ছেলে নেলসন ডাকাডাকি শুরু করেন। পরে পুলিশ কর্মীরা দরজা ভেঙে তার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে। জলপাইগুড়ির জেলা পুলিশ সুপার অমিত জাভালগি বলেন, “রেলের আধিকারিকেরা তাকে আলিপুরদুয়ারে নিয়ে গিয়েছিলেন। হাসপাতালেও তার নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছিল। তা সত্ত্বেও কি করে এমন কাণ্ড ঘটলো, খতিয়ে দেখা হচ্ছে।”

মঙ্গলবার বিকালে সেই হাঁফিয়ে ওঠা জীবন থেকেই মুক্তি পেলেন তিনি। রেল হাসপাতালের শৌচাগার থেকে দেশের প্রথম মহিলা সেনা জওয়ান শান্তি টিগ্‌গার (২৭) ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করলো পুলিশ। এদিন বিকালে আলিপুরদুয়ার জংশনের রেল হাসপাতালের যে কেবিনে কয়েক দিন ধরে ভর্তি ছিলেন শান্তি, তারই লাগোয়া শৌচাগারে গিজারের পাইপে গলায় গামছা জড়ানো অবস্থায় ঝুলতে দেখা যায় তাকে।

 




Leave a Reply

Your email address will not be published.



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
All rights reserved © shirshobindu.com 2022