স্বদেশ জুড়ে

লন্ডন-সিলেট ফ্লাইট চালু

বাংলাদেশ বিমান থেকে সঠিকভাবে সেবা না দেওয়া হয় তাহলে বিমানের জন্য অর্থনৈতিক সাপোর্ট বন্ধ করে দেওয়া হবে মন্তব্য করে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন, বাংলাদেশ বিমান একটি অদক্ষ প্রতিষ্ঠান। মন্ত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এত ভোগান্তির পরও যাত্রীরা বাংলাদেশ বিমান ব্যবহার করে। রোববার সকালে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাড়ে নয় মাস বন্ধ থাকার পর পুনরায় চালু হওয়া লন্ডন-সিলেট ফ্লাইটের অবতরণকালে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী ফারুক খান।
৪১৯ জন যাত্রী নিয়ে ফ্লাইটটি সিলেট পৌঁছালে যাত্রীদের ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করে নেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী ফারুক খান।
এর আগে শনিবার লন্ডন সময় বিকাল ৪ টায় হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে টু জেট এয়ারলাইনের বোয়িং-৭৭৭ এর ফ্লাইটটি রওয়ানা হয়ে রোববার বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে সিলেট অবতরণ করে। এর আগে হিথ্রোতে আনুষ্ঠানিকভাবে ফিতা কেটে ফ্লাইটটির উদ্বোধন করেন চিফ হুইপ উপাধ্য আব্দুস শহীদ, আইন প্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম এবং সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র বদর উদ্দিন আহমেদ কামরান।
অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট কলামিস্ট আব্দুল গাফফার চৌধুরী, যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার সাইদুর রহমান, আতিকুর রহমান চিশতী, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর কুয়াশার অজুহাত দেখিয়ে সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিলো বিমানের সিলেট-লন্ডন-দুবাই সরাসরি ফ্লাইট। সাড়ে ৯ মাস বন্ধ থাকার পর প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণায় আবারো চালু হলো লন্ডন-সিলেট ফ্লাইট।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close