ব্রিকলেন টু জিন্দাবাজার

বিভিন্ন শ্রেণী পেশার অংশ গ্রহনে পালিত হলো বাংলা টিভি‘র জন্মজয়ন্তী

বিলেতে বাঙালীদের প্রথম টেলিভিশন চ্যানেল বাংলা টিভি‘র চৌদ্দ বছরে পদার্পণ উপলক্ষ্যে পূর্ব লন্ডনের ষ্ট্রাটফোর্ডে বাংলাটিভি কার্যালয়ে আয়োজন করা হয় ঝমকালো অনুষ্ঠানমালার।  বিকাল চারটা থেকে রাত পৌনে একটা পর্যন্ত লাইভ বিশেষ অনুষ্ঠান প্রচার করা হয়। বাংলা টিভির দর্শক, শিল্পী, সাহিত্যিক, কূটনীতিক, রাজনীতিক, ব্যবসায়ী, বিজ্ঞাপনদাতা, কমিউনিটি ব্যক্তিত্বসহ সকল শ্রেনী-পেশার মানুষের মিলন মেলায় পরিণত হয় বাংলা টিভি‘র কার্যালয়।
বিকাল চারটা‘য় কেক কেটে চৌদ্দ বছর বরন অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন টাওয়ার হ্যামলেটস মেয়র লুৎফুর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক কলামিস্ট আব্দুল গাফফার চৌধুরী, ব্যারিস্টার অনিস রহমান, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব সভাপতি ও জনমত সম্পাদক নাবাবউদ্দিন, প্রেস মিনিষ্টার রাশেদ চৌধুরী, বাংলা টিভির এমডি সৈয়দ সামাদুল হক সহ বাংলা টিভির কলা-কৌশলী, শুভানুধ্যায়ীসহ অনেকে। এ সময় সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে টাওয়ার হ্যামলেটস মেয়র লুৎফুর রহমান বিলেতে বাংলাদেশী কমিউনিটির উন্নয়নে বাংলা টিভির ভূমিকার প্রশংসা করেন। সাংবাদিক কলামিস্ট আব্দুল গাফফার চৌধুরী বাংলা টিভির সূচনার কথা তুলে ধরেন। এ পর্ব শেষে সৈয়দ সামাদুল হকের সঞ্চালনায় এক ঘন্টার আলোচনা সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আব্দুল গাফফার চৌধুরী, পলা মঞ্জিলা উদ্দিন, ব্যারিস্টার আনিস রহমান, ড. হাসনাত হোসাইন, জিল্লুল হক ও মাসুদ আহমেদ। এ পর্বে বাংলা টিভির সূচনা ও এর কর্মপন্থা ও ইউরোপে বাঙালীদের নিজস্ব সংস্কৃতি চর্চায় ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার ভূমিকা নিয়ে বিষদ আলোচনা করা হয়।
এদিকে সারা দিনব্যাপি কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ দলে দলে বাংলা টিভিতে আসেন। আগত অতিথিরা তাঁদের শুভেচ্ছ বক্তব্য উপস্থাপন করেন। এর মধ্যে ছিলেন হাই কমিশনার ড. সাইদুর রহমান খান, বিচারপতি কে এম শফিউদ্দিন, বিচারপতি সামছুদ্দিন চৌধুরী মানিক, চ্যানেল এস এর চেয়ারম্যান আহমেদ উস সামাদ চৌধুরী জেপি, প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যন মাহি ফেরদৌস জলিল, ফাইভষ্টার হোটেল এক্সেলসিয়রের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর সাঈদ চৌধুরী ও মার্কেটিং ডাইরেক্টর আহমদ আলী, কবি শামীম আজাদ, এনটিভি ইউকের পরিচালক হেলাল উদ্দিন, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক, সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খসরুজ্জামান, জেএমজি কার্গোর মুনির আহমদ, ব্যারিষ্টার মনওয়ারসহ শতাধীক শুভাকাঙ্খী।
অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন আমিন রাজা, পরশ মনি, নাদিয়া, তানিয়া, মঞ্জুলিকা জামালী, ওয়াহিদ, রওশন আরা মনি, সুমন শরীফ, সুমি চৌধুরী, সয়ফুল, শেফালীসহ বিলেতের জনপ্রিয় প্রায় পঁচিশ জন শিল্পী। শুরু থেকে বিভিন্ন পর্যায়ের অনুষ্ঠান উপস্থাপন করেন দিনাক সোহানী, পরশ মনি, জাহাঙ্গির, লিসা গাজী, মিলটন রহমান, আরিফ, সুজিয়া চৌধুরী ও আব্দুল কাদির মুরাদ।
চারটা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত অনুষ্ঠানটি বাংলা টিভি  স্টুডিও থেকে সরাসরি সম্প্রচার হয়। যারা সরাসরি অনুষ্ঠানে যোগ দেন তারা ছাড়াও বিলেত এবং ইউরোপে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা দর্শকরা সমানতালে অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। সব মিলিয়ে এ ছিল জন্মদিনে এক ভিন্ন ধরণের আয়োজন।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close