দুনিয়া জুড়ে

বিশ্বের সবচেয়ে প্রবীণ নারী আর নেই

জর্জিয়ার অধিবাসী বিশ্বের সবচেয়ে প্রবীণ নারী হিসেবে নিজেকে দাবি করা আনতিসা ১৩২ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেছেন। একাধারে দুটি বিশ্বযুদ্ধ ও রাশিয়া অভ্যুত্থানের সাক্ষী ছিলেন তিনি। তিনি জর্জিয়ার দূরবর্তী পার্বত্য গ্রাম স্যাচিনোর বাসিন্দা ছিলেন। ১৮৮০ সালের ৮ই জুলাই তার জন্ম। প্রমাণ হিসেবে তিনি সোভিয়েত আমলের বেশ কিছু প্রমাণপত্র রেখেছিলেন নিজের কাছে। তা সত্ত্বেও তার জন্মের প্রকৃত সাল নিয়ে বিতর্ক ছিল। বিশেষজ্ঞরা তার দাবির ব্যাপারে সন্দিহান ছিলেন। দুর্ভাগ্যজনকভাবে শেষ পর্যন্ত বিষয়টি অমীমাংসিতও ছিল। আর তাই আন্তর্জাতিকভাবে জীবিত সবচেয়ে প্রবীণ নারীর আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি কখনও মেলেনি তার। অবশ্য তার প্রতিবেশী, বন্ধু-বান্ধব ও জর্জিয়ার শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তারা আনতিসার দাবিকে বরাবর সমর্থন করেছেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন টাইমস অব ইন্ডিয়া। ১৯৬৫ সালে ৮৫ বছর বয়সে তিনি চা পাতা ও শস্যদানা সংগ্রহের চাকরি থেকে অবসর নেন। আনতিসার সন্তানদের ঘরে ১২ নাতি-নাতনী রয়েছে। তাদের ঘরে রয়েছে আরও ১৮ সন্তান। আবার তাদের ঘরেও আছে ৪ সন্তান। তার পুত্র মিখাইলের বয়স এখন ৭২ বছর। আনতিসার ৬০ বছর বয়সে মিখাইলের জন্ম হয়েছিল। এদিকে আনতিসার মৃত্যুতে জর্জিয়াজুড়ে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close