দুনিয়া জুড়ে

আমেরিকায় ধনী-গরিব বৈষম্য

আমেরিকায় ধনী ও গরিবের মধ্যে বৈষম্য বেড়েই চলেছে বলে নতুন এক অর্থনৈতিক সমীক্ষায় উঠে এসেছে। আমেরিকার সেন্টার ফর বাজেট এবং পলিসি প্রাইয়োরিটিস নামের একটি প্রতিষ্ঠান এ সমীক্ষা চালিয়েছে। এতে দেখা গেছে, ১৯৭০-এর দশক থেকে গত তিন দশকে আমেরিকার ধনী পরিবারগুলোর আয় উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে। কিন্তু মধ্য ও নিম্ন আয়ের পরিবারগুলোর আয় তুলনামূলক কম বেড়েছে। এমনকি মুদ্রাস্ফীতির হার হিসাব করার পর তাদের আয় কোনো কোনো ক্ষেত্রে বরং কমে গেছে বলে এ সমীক্ষায় দেখা গেছে। অর্থনৈতিক এ সমীক্ষার জন্য মার্কিন আদম শুমারি ব্যুরোর তথ্য-উপাত্ত ব্যবহার করা হয়েছে। এ সমীক্ষায় বলা হয়েছে,১৯৯০-এর দশকের শেষার্ধ এবং ২০০০ সালের মধ্যবর্তী পর্যায়ে এ বৈষম্যের হার সবচেয়ে ত্বরান্বিত হয়েছে। এতে আরো বলা হয়েছে, তিন দশকে মুদ্রাস্ফীতি সমন্বয় করার পর ধনী পরিবারগুলোর মাথাপিছু বাতসরিক আয় গড়ে দুই হাজার ৫৫০ ডলার করে বেড়েছে।  অন্যদিকে একই সময়ে গরিব পরিবারগুলোর আয় বেড়েছে মাত্র এক হাজার ৩৩০ ডলার। অবশ্য এ আয়ের ক্ষেত্রে মুদ্রাস্ফীতি সমন্বয় করা হয়নি। বর্তমানে আমেরিকায় যে অর্থনৈতিক বৈষম্য হচ্ছে সে সংক্রান্ত তথ্য হাতে না পাওয়ায় তা এ সমীক্ষার  হিসাবে ধরা হয়নি। এ হিসাবটি যোগ করা হলে তাতে ধনী-গরিবের অর্থনৈতিক বৈষম্য আরো বাড়তো বলে সমীক্ষায় বলা হয়েছে। এতে ধনী-গরিবের মধ্যে বৈষম্য বাড়ার অন্যতম কারণ হিসেবে মার্কিন সরকারের নীতিকে দায়ী করা হয়েছে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close