স্বদেশ জুড়ে

স্মৃতিপটে নয়জন বীর শহীদ

১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর সকালে লক্ষ্যভ্রষ্ট এক মার্টারশেল বিস্ফোরণে শহীদ হয়েছিলেন একই পরিবারের নয়জন বীর শহীদ । তাদের সমাহিত করার স্থানে লাল-সবুজের পতাকার আচ্ছাদন। দুই দিকে ওরা নয়জন শিশু হাতে ফুল নিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করল।

সিলেট নগরের মির্জাজাঙ্গাল এলাকায় শিশুদের স্মরণ আনুষ্ঠানিকতার পর শহীদ পরিবারসহ স্মরণ অনুষ্ঠানের আয়োজক সংগঠন শ্রদ্ধা নিবেদন করে।  চার দশকেও সেই ঘটনা আর শহীদদের স্মরণ করেনি কেউ। গত বছর এ দিনকে সামনে রেখে ১৪ ডিসেম্বর ‘কেউ স্মরণ রাখেনি সেই কাহিনি’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন সূত্রে সিলেটের মুক্তচিন্তার সংগঠন ‘নিনাই’ শহীদ পরিবারকে নিয়ে প্রথমবারের মতো স্মরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। ৪০ বছর পর ‘স্মরণে তোমরা, স্মৃতিতে তোমরা, তোমরা আছো মানসপটে’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে গত বছরই প্রথম স্মরণ অনুষ্ঠানে একাত্ম হয়েছিলেন সবাই। এবার নয়জন শহীদকে নয় শিশুর হাতে ফুল দিয়ে স্মরণ করা হয়।

শিশুদের স্মরণের পরপরই শহীদ পরিবারের পক্ষে গীতা এন্দ, প্রতীক এন্দ, আইনজীবী তাপস বন্ধু দাশ, সিলেটের ইতিহাস-ঐতিহ্য-প্রকৃতি সংরক্ষন পরিষদের আহবায়ক আবদুল করিম  শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

স্মরণ অনুষ্ঠানের আয়োজক সংগঠন নিনাইয়ের আহবায়ক তায়েফ আহমদ চৌধুরী জানান, ১৯৭১ সালে সারা দেশ যখন বিজয় আনন্দে ভাসছিল, তখন মির্জাজাঙ্গালের এই স্থানজুড়ে চলছিল শোকের মাতম। যাঁরা শহীদ হয়েছিলেন, তাঁরাও বিজয় আনন্দের মধ্যে ছিলেন। সকাল নয়টা ৩২মিনিটের সময় এ ঘটনা ঘটেছিল বলে আমরা ঠিক ওই সময়ে সংক্ষিপ্ত পরিসরে স্মরণ অনুষ্ঠান করে শহীদ পরিবারের প্রতি সংহতি প্রকাশ করছি।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close