গ্যালারী থেকে

ফের জয় কেড়ে নিল সিলেট রয়্যালস

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের এমএ  আজিজ স্টেডিয়ামে বিপিএল প্রথম ম্যাচে রংপুর রাইডার্সকে ৫ উইকেটে হারিয়ে জয়ের ধারায় ফিরেছে সিলেট রয়্যালস। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ১৯ ওভার ৩ বলে ১২২ রানে অলআউট হয়ে যায়  রংপুর। জবাবে ১৯ ওভার ৩ বলে ৫ উইকেটে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় সিলেট। সিলেটের পক্ষে সোহাগ ও স্মিথ  তিনটি করে উইকেট নেন। ডার্ক ন্যানেস ১৮ রানে নেন দুই উইকেট।রংপুরের শেষ ৮ ব্যাটসম্যানের কেউ দুই অঙ্কের কোঠায় পৌঁছাতে পারেন  নি। তাদের চারজনই রানের খাতা খোলতে পারেন নি।মোট ৭ খেলায় এটি সিলেটের ষষ্ঠ জয়। মুধু গত খেলায় সিলেট রয়্যালস হেরে গিয়েছিল ঢাকার কাছে অন্য দিকে ৬ খেলায় রংপুরের তৃতীয় হার।
লক্ষ্য তাড়া  করতে নেমে শিবনারায়ণ চন্দরপলের সঙ্গে ডোয়াইন স্মিথের ৩৯ রানের উদ্বোধনী জুটি  সিলেটকে ভালো সূচনা এনে দেয়। ২১ বলে ৭টি চারে ৩১ রান করা স্মিথের বিদায়ের পর  চন্দরপল (১১), মমিনুল হক (১) ও মোহাম্মদ নবীর (৬) দ্রুত বিদায়ে বেশ চাপে পড়ে যায়  পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ দলটি। ষষ্ঠ উইকেটে অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে  নাজমুল মিলনের ৩৭ রানের জুটি স্বস্তি ফেরায় সিলেট শিবিরে। দলীয় ৯৯ রানে নাসির  হোসেনের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়ে মুশফিক (২৪ বলে ১৭) বিদায় নিলেও এল্টন  চিগুম্বুরাকে (৭ বলে ১০) নিয়ে বাকি কাজটুকু সারেন নাজমুল।ম্যাচ সেরা  নাজমুলের ২৯ বলে খেলা ৪৫ রানের ইনিংসে ৫টি চার ও ১টি ছক্কা।
রংপুরের পক্ষে  নাসির ২ উইকেট নেন ১৯ রানে।
এর আগে ব্যাট করতে নেমে ডানজা হায়াটের সঙ্গে  শামসুর রহমানের ৩৮ রানের উদ্বোধনী জুটির সৌজন্যে শুরুটা ভালোই হয়  রংপুরের। দ্বিতীয় উইকেটে ক্যামেরন বোর্গাসের সঙ্গে শামসুরের ৬৩ রানের আরেকটি  চমৎকার জুটি দলকে ১ উইকেটে ১০১ রানের দৃঢ় ভিতের ওপর নিয়ে আসে। পনেরতম ওভারের  তৃতীয় বলে বোর্গাসকে (২৯ বলে ২৮) মমিনুলের ক্যাচে পরিণত করে বিপজ্জনক হয়ে উঠা জুটি  ভাঙ্গেন সোহাগ গাজী। বোর্গাসের বিদায়ের পর খেলা চিত্র একেবারেই পাল্টে যায়। এক সময়  দেড়শ পেরুনোর সম্ভাবনা জাগিয়েও শেষ ৩০ বলে ২১ রান তুলতেই ৯ উইকেট হারিয়ে ফেলা রংপুর  তার ধারে কাছেও যেতে পারেনি। সতেরতম ওভারে দুই বলের মধ্যে রানের খাতা খোলার  আগেই কেভিন ও’ব্রায়েন ও সৈকত আলীকে মুশফিকের ক্যাচে পরিণত করে হ্যাটট্রিকের  সম্ভাবনা জাগান সোহাগ।দলীয় ১১৫ রানে নবীর শিকারে পরিণত হওয়ার আগে ৫২ রান  শামসুর। তার ৪৬ বলের ইনিংসে ৫টি চার ও ১টি ছক্কা। এটি তার তৃতীয়  অর্ধশতক। ১৯তম ওভারে দুই বলের মধ্যে নিয়াল ও’ব্রায়ান ও আব্দুল রাজ্জাকের  বিদায় দলের বিপদ আরো বাড়ায়। স্মিথের করা শেষ ওভারের তিন বলের মধ্যে ফিদেল এডওয়ার্ডস  ও মোহাম্মদ শরীফ সাজ ঘরের পথ ধরলে ৩ বল বাকি থাকতেই অলআউট হয়ে যায়  রংপুর।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close