Featuredদুনিয়া জুড়ে

প্রতিদিন ব্যয় ১৬ লাখ টাকা

 

ব্রিটেন পুলিশের তথ্য মতে উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জকে পাহারা দেয়ার জন্য ব্রিটিশ সরকারের প্রতিদিনের ব্যয় প্রায় ১৬ লাখ টাকা। লন্ডনে ইকুয়েডরের দূতাবাস ঘিরে ২৪ ঘণ্টা পুলিশি পাহারার পেছনে এ অর্থ ব্যয় হয়। সুইডেনে প্রত্যর্পণ এড়াতে গত বছরের জুন থেকে ওই দূতাবাসে আছেন অ্যাসাঞ্জ।

লন্ডন মহানগর পুলিশের সদর দফতর স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের ধারণা, গত বছর জুন থেকে গত জানুয়ারি পর্যন্ত ইকুয়েডর দূতাবাসের বাইরে সার্বক্ষণিক পুলিশি পাহারার পেছনে তাদের মোট ব্যয় হয়েছে ২৯ লাখ পাউন্ড (প্রায় সাড়ে ৩৫ কোটি টাকা)। সে হিসেবে গত প্রায় সাড়ে সাত মাসে অ্যাসাঞ্জের পেছনে দৈনিক ব্যয় হয়েছে ১৬ লাখ টাকা। এর মধ্যে ২৩ লাখ পাউন্ড খরচ হয়েছে সেখানে দায়িত্ব পালনকারী পুলিশ সদস্যদের বেতনের পেছনে। আর বাকিটা খরচ হয়েছে ওই পুলিশ সদস্যদের ওভারটাইমের পেছনে।

ইকুয়েডর দূতাবাসের এক মুখপাত্র বলেন, যুক্তরাজ্য অ্যাসাঞ্জের দায়িত্ব নিয়ে এই খরচের বহর কমাতে পারে। সেক্ষেত্রে যুক্তরাজ্যকে নিশ্চয়তা দিতে হবে যে তারা কোনোভাবেই অ্যাসাঞ্জকে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দেবে না। ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় চাইলে আমাদের এ প্রস্তাব দিতে পারে। তবে এখন পর্যন্ত তারা সে রকম কোনো উদ্যোগ নেয়নি। ওই মুখপাত্র আরও বলেন, অ্যাসাঞ্জকে যুক্তরাষ্ট্রে পাঠানো হবে না—এমন নিশ্চয়তা না পাওয়া পর্যন্ত ইকুয়েডর অ্যাসাঞ্জের নিরাপত্তা ও মানবাধিকার রক্ষা করবে।

যৌন নিপীড়নের অভিযোগে সুইডেনে অ্যাসাঞ্জের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে। সুইডেন চায় লন্ডন তাকে তাদের হাতে তুলে দিক। এ বিষয়ে সুইডিশ কর্তৃপক্ষের আহ্বানের পরিপ্রেক্ষিতে ২০১১ সালের ডিসেম্বরে লন্ডন পুলিশ অ্যাসাঞ্জকে গ্রেফতার করে। পরে ব্রিটেনের সর্বোচ্চ আদালত তাকে সুইডেনে প্রত্যর্পণের পক্ষে রায় দেয়। রায়ের পরপরই গত বছর ১৯ জুন লন্ডনের ইকুয়েডর দূতাবাসে আশ্রয় নেন অ্যাসাঞ্জ। ওইদিন থেকেই সেখানে ২৪ ঘণ্টা পুলিশি পাহারা শুরু করে যুক্তরাজ্য সরকার।

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close