কিচিরমিচির

আসছে হ্যালোবিডিনিউজ২৪.কম

 

 

 

 

 

 

 

 

আগামী রোববার থেকে শিশুদের সংগ্রহ করা খবর নিয়ে শিশুদের জন্য চালু হচ্ছে বিশেষায়িত ওয়েবসাইট hello.bdnews24.com। এই ওয়েবসাইটের জন্য সংবাদ সংগ্রহ থেকে পরিবেশন পর্যন্ত সব কাজেই যুক্ত থাকবে ১০ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশু ও কিশোর সাংবাদিকরা। ওয়েবসাইটটি পরিচালনা করবে দেশের প্রথম ইন্টারনেট সংবাদপত্র bdnews24.com। আর এ উদ্যোগে সহযোগিতা দিচ্ছে জাতিসংঘ শিশু তহবিল -ইউনিসেফ। শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জানান bdnews24.com এর জ্যেষ্ঠ সহ-সম্পাদক এবং শিশু সাংবাদিক বাছাই প্রক্রিয়ার সমন্বয়ক মুজতবা হাকিম প্লেটো।

আগামী রোববার হোটেল রূপসী বাংলায় বেলা ১১টায় ওই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শিরিন শারমিন চৌধুরী এবং ঢাকায় ইউনিসেফের প্রতিনিধি প্যাসকেল ভিলনেভ।

ইউনিসেফের কমিউনিকেশনস স্পেশালিস্ট এ এম সাকিল ফাইজুল্লাহ বলেন, ২০০৯ ও ২০১১ সালে ইউনিসেফ পরিচালিত দুটি জরিপে দেখা যায় যে,  মূলধারার গণমাধ্যমে মাত্র তিন শতাংশ জায়গা পায় শিশুরা। এর মধ্যে দুই শতাংশই দুর্ঘটনা ও অন্যান্য খবর। আর শিশুদের অধিকার নিয়ে খবর থাকে মাত্র এক শতাংশ। এদেশের মোট জনসংখ্যার ৪৫ শতাংশই যেখানে শিশু সেখানে সংবাদমাধ্যমে তাদের উপস্থিতি আমরা তেমন দেখি না। hello.bdnews24.com এর মাধ্যমে এই হারকে ১০ শতাংশে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে বলে আশা প্রকাশ করেন ইউনিসেফের এই কর্মকর্তা। তিনি বলেন, bdnews24.com যেহেতু সংবাদ সংস্থার ভূমিকাও পালন করে, সেহেতু অন্যান্য গণমাধ্যমও hello.bdnews24.com এর সংবাদ নিয়ে তা প্রকাশ করতে পারবে।

kidz.bdnews24.com সম্পাদক ও bdnews24.com এর সোশ্যাল অ্যাফেয়ার্স এডিটর বেবী মওদুদ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, bdnews24.com ২০০৭ সালে প্রথমবারের মতো বাংলায় শিশুদের জন্য একটি বিশেষায়িত ওয়েবসাইট চালু করে। অল্প সময়ের মধ্যে দারুণ জনপ্রিয়তা পায় kidz.bdnews24.com। তিনি আরো বলেন, আজকের এই নির্বাচিত শিশুরা সাংবাদিকতার প্রশিক্ষণ নিয়ে পরবর্তী জীবনে সাংবাদিকতাকেই পেশা হিসাবে বেছে নেবে এমন নয়। তবে এখানে কাজ করতে এসে পেশাদারিত্বের বিষয়গুলো তাদের শেখা হবে, যা তাদের পরবর্তী জীবনে কাজে লাগবে।

মুজতবা হাকিম প্লেটো জানান, hello.bdnews24.com  এর সঙ্গে কাজ করার জন্য প্রাথমিকভাবে ইউনিসেফ নির্বাচিত ২০টি জেলার প্রায় তিন হাজার শিশু কিশোরের মধ্যে থেকে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে ২১০ জনকে নির্বাচিত করা হয়। মুজতবা হাকিম বলেন, শারীরিক প্রতিবন্ধী, সমাজের সুবিধাবঞ্চিতসহ সব শ্রেণি পেশার শিশুরাই যাতে এ আয়োজনে অংশ নিতে পারে, সে জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা তারা করেছেন।

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close