স্বদেশ জুড়ে

সাভারে বহুতল ভবন ধস : বৃহস্পতিবার জাতীয় শোক ঘোষণা (ভিডিও)

 

 

 

 

 

 

 

 

 

স্বদেশ জুড়ে ডেস্ক: ঢাকার অদূরে সাভারের জামতলা বাসস্ট্যান্ডের কাছে একটি ৯ তলা ভবন ধসে পড়েছে। ভবনটি ধসে আশপাশের ৪-৫টি ভবনও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ধসে পড়ার সময় ভবনের ভেতরে কমপক্ষে ৫ হাজার শ্রমিক ছিল। বহু মানুষ ধ্বংসস্তুপের নিচে আটকা পড়ে থাকায় নিহতের সংখ্যা বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এ পর্যন্ত  ধ্বংসস্তুপ থেকে অন্তত ৯৭টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এই সংখ্যা একশ ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আহত অবস্থায় স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতলে ভর্তি করা হয়েছে সাতশ’র বেশি লোককে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কয়েকটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার ততপরতা শুরু করেছে।  পরে পুলিশ, র‍্যাব ও সেনাবাহিনীও উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেছে। এখনো উদ্ধার কাজ অব্যাহত আছে বল স্থানীয় সূত্রে জানা যায়।

এলাকাবাসীরা জানান, গতকাল মঙ্গলবার বহুতল ভবনটিতে ফাটল দেখা দেয়। এরপর সাভার উপজেলা নির্বাহী কমকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নিরাপত্তার স্বার্থে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত ওই ভবনের সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন।

আজ সকালে ভবন থেকে মালামাল সরাতে যান প্রায় সবগুলো দোকান ও প্রতিষ্ঠানের লোকজন। এছাড়া, নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে আজ সকালে গার্মেন্ট খুলে দেয়া হলে কয়েক হাজার শ্রমিক কাজে যোগ দেন। ফাটল ধরার পর মঙ্গবার কারখানাগুলো বন্ধ রাখা হলেও বুধবার সকালে শ্রমিকদের কাজে যোগ দিতে বাধ্য করা হয় বলে অভিযোগ এসেছে। তাদের প্রায় সবাই ভেতরে আটকা পড়েছেন। ওই ভবনে থাকা কারখানাগুলো হচ্ছে- তৃতীয় তলার নিউ ওয়েভ বটমস লিমিটেড, চতুর্থ তলার প্যান্টম অ্যাপারেলস লিমিটেড, পঞ্চম তলার প্যান্টম ট্যাক লিমিটেড ও ষষ্ঠ তলার ঈথার  টেক্সটাইল লিমিটেড। দ্বিতীয় তলায় ছিল বেসরকারি ব্র্যাক ব্যাংকের সাভার শাখা। নয় তলা ভবনটির প্রথম ও দ্বিতীয় তলায় ইলেকট্রনিক্স, কম্পিউটার, প্রসাধনী সামগ্রী ও কাপড়ের মার্কেট।

ভবনটির মালিক সাভার পৌর যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সোহেল রানা। ভবনটিতে ফাটল দেখা দেয়ার পর তিনি মঙ্গলবার সবাইকে আশ্বস্ত করে বলেছিলেন, কোন সমস্যা হবে না, সামান্য একটু প্লাস্টার খসে পড়েছে মাত্র। দুর্ঘটনার পর থেকে স্থানীয় লোকজন ও আটকা পড়া ব্যক্তিদের স্বজনেরা মালিকের বিরুদ্ধে ক্ষোভ দেখাচ্ছেন। তাঁদের অভিযোগ, ফাটল দেখা যাওয়ার পরও ভবনটিতে কাজ চালিয়ে যাওয়ার কথা বলায় আজ এত মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে। দুর্ঘটনার সময় ভবনের মালিক রানাও গুরুতর আহত হন। সকালের দিকে তাকে বেসমেন্ট থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভবন ধসের খবর শুনে শত শত মানুষ রানা প্লাজার সামনে অবস্থান নিয়েছেন। অনেকেই তাদের আটকেপড়া স্বজনদের খোঁজে কান্নায় ভেঙে পড়েন।

এদিকে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া সাভারে হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক করেছেন। ভবন ধসের পরপরই বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে ঢাকা ও আশপাশের এলাকা থেকে হরতাল প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন।

বৃহস্পতিবার জাতীয় শোক ঘোষণা করেছে সরকার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বুধবার জাতীয় সংসদে সাভারের ভবন ধসের মর্মান্তিক ঘটনায় বৃহস্পতিবার জাতীয় শোক দিবস ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, জাতীয় শোক পালন করা হলেও ছুটি ঘোষণা করা হয়নি। অফিস আদালত ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা থাকবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররফ হোসাইন ভূঁইঞা স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেন, বৃহস্পতিবার সব সরকারি-বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিশেষ দোয়া ও প্রার্থনার ব্যবস্থা করা হবে।

http://www.youtube.com/watch?v=oTTI44YHkuU&feature=player_embedded

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close