ব্রিকলেন টু জিন্দাবাজার

বৃটিশ ডেপুটি স্পিকার গ্রেপ্তার অতঃপর জামিন

বৃটেনের হাউজ অব কমন্স -এর ডেপুটি স্পিকার নাইজেল ইভানসকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আনা অবিযোগে বলা হয় তিনি দু’জন নারীকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করেছেন। শনিবার সকালে রক্ষণশীল দলের এই এমপিকে ল্যাঙ্কাশায়ারের পেন্ডেলটন শহরের নিজ বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। শনিবার রাত পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে ১৯শে জুন পর্যন্ত জামিন মঞ্জুর করে ব্রিটিশ আদালত। এর আগে পুলিশ তার বাসায় ব্যাপক তল্লাশি চালায়।

এই ধর্ষিত নারীদের দাবি ২০০৯-এর জুলাই এবং ২০১৩’র মার্চের কোন এক সময়ে তাদেরকে ধর্ষণ ও যৌন হয়রানি করা হয়। দু’জনই নাইজেল ইভানসের নির্বাচনী এলাকার বাসিন্দা। ধর্ষণের সময় উভয়েরই বয়স ২০ -এর মতো ছিল বলে তারা দাবি করেন। তবে তাদের সঠিক বয়স প্রকাশ করা হয়নি।

উল্লেখ্য, ৫৫ বছর বয়সী নাইজেল ২০১০ -এ আরও একবার আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হন যখন তিনি নিজেকে সমকামী বলে ঘোষণা দেন। নাইজেল ইভানস ১৯৯২ সাল থেকে রিবল ভ্যালি এলাকার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে আসছেন। ১৯৯৯ সাল থেকে ২০০১ পর্যন্ত টোরি পার্টির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১০-এর জুনে তিনি ডেপুটি স্পিকারের পদে নির্বাচিত হন। ২০১০ সালে নিজেকে সমকামী হিসেবে ঘোষণা দেয়ার আগে থ্যাচার সরকারের সমকামিতা প্রচার নিষিদ্ধ করার সেকশন ২৮ আইনের পক্ষে অবস্থান নিয়েছিলেন। পরে অবশ্য তার সিদ্ধান্ত নিয়ে অনুশোচনা প্রকাশ করেন নাইজেল ইভানস।

 

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close