Featuredস্বদেশ জুড়ে

বিমানের লন্ডন অফিস বিক্রি করে দিচ্ছেন নয়া এমডি

 

 

 

 

 

 

 

 

 

স্বদেশ জুড়ে: লোকসানের ভারে নূহ্য বিমান বাংলাদেশ এয়ারলইন্সকে লাভজনক করতে এবং নতুন এয়ারক্রাফট কিনতে পর্যাপ্ত টাকা না থাকায় বিমানের লন্ডন অফিস বিক্রি করে দিতে উদ্যেগ নিয়েছেন বিমানের নবনিযুক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কেভিন স্টিল।

বিমানের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, বিমানের সর্বশেষ পরিচালনা পর্ষদ সভায় লন্ডন অফিস, মতিঝিলের অফিস, ফার্মগেটে বিমানের প্রেসের জায়গাসহ বিভিন্ন সম্পদ বিক্রির প্রস্তাব করেন। এই চক্রের প্ররোচনায় পড়েই লন্ডন অফিসের জায়গা বিক্রিতে উদ্যোগী হয়েছেন কেভিন স্টিল। বিষয়টি নিয়ে বিমানের ভেতরে তোলপাড় শুরু হয়েছে। এ ব্যাপারে বিমানের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তা থেকে নিচের দিকের বেশিরভাগ কর্মকর্তাই প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ। তবে প্রকাশ্যে এ নিয়ে কেউ কথা বলতে সাহস করছেন না। বিমানের এক কর্মকর্তা জানান, এর আগে ব্যবস্থাপনা পরিচালকরাও এত বেশি ক্ষমতা নিয়ে বিমানের প্রধান নির্বাহীর পদে আসীন হননি। কেভিন বিমানের চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন আহমেদের লোক হওয়ায় তার হাতে অনেক বেশি ক্ষমতা। তাই কেভিন চাইলেই তা বাস্তবায়ন করতে পারেন। এরই মধ্যে কেভিনের মাধ্যমে জায়গাটির দাম ৩৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে উঠেছে। কেভিন বিভিন্ন মাধ্যমে জায়গার দাম নিয়ে যোগাযোগ করেছেন। বিমানের নাস ট্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান, জায়গা বিক্রিতে কেভিন ও চেয়ারম্যান এর আগ্রহ বেশি। এতে বিমানের কোন লাভ না হলেও বিমানের এই উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাদের পকেট ভারী হবে তা নিশ্চিত।

প্রসঙ্গত: ইংল্যান্ডের রাজধানী লন্ডনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যিক এলাকার কনডিউট স্ট্রিটে বিমানের নিজস্ব জায়গার ওপর তিন তলা বিশিষ্ট অফিস রয়েছে।। সেন্ট্রাল লন্ডনের গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় অফিসটি হওয়ায় ইংল্যান্ডেরই অনেকের নজরে জায়গাটি পড়েছে। আর কেভিন স্টিল নিজেই ওই দেশের নাগরিক হওয়ায় অফিসের জায়গা, গুরুত্ব ও এর মূল্য সম্পর্কে ভালোই জ্ঞান রাখেন। অভিযোগ রয়েছে, যে কারণে নিজেই ইংল্যান্ডের এই জায়গা কেনার চক্রের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছেন।

সোমবার বিমানের সংবাদ সম্মেলনেই এ বিষয়ে কেভিন স্টিলের কাছে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, হ্যাঁ আপনারা ঠিক শুনেছেন। আমি বিমানের দামি এসব জায়গা বিক্রি করা অথবা এগুলোকে কাজে লাগিয়ে কিভাবে বিমান লাভবান হতে পারে তা নিয়ে কথা বলেছি। আমি নিজেই বিমানের পরিচালনা পর্ষদে এই প্রস্তাব জমা দিয়েছি। আশা করি বিমান এ ব্যাপারে পজিটিভ সিদ্ধান্ত নেবে। বিমানকেও লাভবান করতে আমি উদ্যেগ নিয়েছি।

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close