Featuredস্বদেশ জুড়ে

কিশোরগঞ্জ উপনির্বাচন: দৃশ্যপট বদলে এবার জমবে খেলা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

প্রেসিডেন্ট পুত্রের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতের সম্ভাবনা ম্লান করে জমে উঠেছে ভোটের খেলা। নির্বাচন কমিশনে দাখিল করা বিদ্রোহী প্রার্থী সৈয়দ মহিতুল ইসলাম আপিলের রায়ে প্রার্থিতা ফিরে পেলে হঠাৎ বদলে যায় দৃশ্যপট। প্রেসিডেন্টপুত্র রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিককে এখন লড়তে হবে জটিল ভোটের যুদ্ধ। গত ৯ই জুন কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম) আসনের উপ-নির্বাচনের জন্য মনোনয়নপত্র দাখিলকারী তিন প্রার্থীর মধ্যে একমাত্র আওয়ামী লীগ প্রার্থী ছাড়া বাকি দুই প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল বলে ঘোষণা করেন রিটার্নিং অফিসার। ফলে আওয়ামী লীগ প্রার্থী প্রেসিডেন্ট পুত্র রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিকের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল হয়ে ওঠে। উৎফুল্ল কর্মী-সমর্থকরা প্রেসিডেন্টপুত্রকে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত করে মিষ্টি বিতরণ করেন। প্রার্থিতা বাতিল হওয়া স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ মহিতুল ইসলাম অসীমের সমর্থকদের মাঝে বিরাজ করে ক্ষোভ ও হতাশা। এ রকম পরিস্থিতিতে গত বৃহস্পতিবার বিকালে নির্বাচন কমিশন সৈয়দ মহিতুল ইসলাম অসীমের আপিলের প্রেক্ষিতে তার প্রার্থিতা বহালের ঘোষণা প্রদান করে। আর এ ঘোষণার পর পরই হঠাৎ করে বদলে গেছে দৃশ্যপট। বর্ষায় হাওরবাসীর অখ- অবসরে বাড়ির আঙিনা, রাস্তাঘাট, বাজার, চায়ের স্টল থেকে শুরু করে সর্বত্র আলোচনার অন্যতম প্রধান বিষয় হয়ে ওঠেছে- উপ-নির্বাচন। দুই প্রার্থীর ভালো-মন্দের বিচার বিশ্লেষণ ও ভোটের হিসাব নিয়ে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। দুই প্রার্থী ও তাদের কর্মী-সমর্থকরাও গা-ঝাড়া দিয়ে উঠেছেন। নানামুখী তৎপরতায় মাঠের লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন তারা। স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ মহিতুল ইসলাম অসীমের প্রার্থিতা বহাল বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা পাওয়ার পর রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় থেকেও স্থানীয়ভাবে নির্বাচনমুখী তৎপরতা শুরু হয়ে গেছে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close