দুনিয়া জুড়ে

৫০.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় সংযুক্ত আরব আমিরাতে পবিত্র রমযান শুরু

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

নিউজ ডেস্ক: তীব্র তাপদাহে পুড়ছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। প্রথম রোজায় এমন গরমে কাহিল অবস্থা রোজাদারদের। এ অবস্থায় লোকজনকে জরুরি প্রয়োজনে ছাড়া বাইরে না বেরুতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। অনলাইন গালফ নিউজ এ খবর দিয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার সেখানে তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যায়। এতে বাধ্য হয়ে লোকজন আশ্রয় নেন কোন ছায়ায় অথবা যাদের সামর্থ আছে তারা আশ্রয় নিয়েছেন এয়ার কন্ডিশনে। আজ সেখানে পালিত হচ্ছে পবিত্র রমজানের প্রথম দিন। এদিনও বিভিন্ন এলাকায়, বিশেষ করে উপকূলীয় এলাকাগুলোতে তাপমাত্রা আজ আরও বেড়ে যেতে পারে বলে পূর্বাভাষ দেয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, বাতাসের আর্দ্রতাও একই রকম থাকতে পারে।

একজন আবহাওয়া বিশেষজ্ঞ বলেন, খোলা স্থানে যারা কাজ করেন, যেসব শিশু ঘরের বাইরে খেলাধুলা করে এবং যারা রোজা পালন করছেন তাদের সবারই বেশি করে সতর্ক থাকা দরকার। তিনি আরও সতর্ক করেছেন, খোলা স্থানে এমনকি কোন ছায়ায়ও দীর্ঘসময় অবস্থান করা বিপজ্জনক। মঙ্গলবার সংযুক্ত আরব আমিরাতে সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রা ছিল আল আইনের দক্ষিণ-পশ্চিমের শহর উম্ম আল জুমুলে। সেখানে তাপমাত্রা উঠে যায় ৫০ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অন্য স্থানগুলোতে অবস্থার খুব একটা পরিবর্তন ছিল না।

মঙ্গলবার ফালাজ আল মুল্লায় তাপমাত্রা ছিল ৪৯.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, আল আইনে ৪৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, দুবাইতে ৪৮.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, রাস আল খাইমাতে ৪৭ ডিগ্রি, উম্ম আল কুইওয়াইনে ৪৪ ডিগ্রি। সংযুক্ত আরব আমিরাতে জুলাই ও আগস্ট মাসকে সবচেয়ে বেশি গরমের সময় হিসেবে ধরা হয়। এ সময় তাপমাত্রা থাকে অনেক বেশি। বাতাসের আর্দ্রতাও থাকে অনেক বেশি। এতে অস্বস্তি বেড়ে যায়। কয়েক দিনে সেখানে সর্বোচ্চ আর্দ্রতা ছিল শতকরা ৬০ থেকে ৮০ ভাগে।

এক আবহাওয়াবিদ বলেছেন, কয়েক দিনের মধ্যে আবহাওয়ার বর্তমান অবস্থার পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা নেই। রাতে ও ভোরে বাতাসের আর্দ্রতা বাড়তে পারে। আবহাওয়া অফিসের দেয়া তথ্যমতে, দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

 

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close