প্রযুক্তি আকাশ

নকিয়ায় কেন অ্যান্ড্রয়েড নয়

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

প্রযুক্তি আকাশ ডেস্ক; গার্ডিয়ানে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সম্প্রতি সাংবাদিকদের সঙ্গে এক গোলটেবিল আলোচনায় স্টিফেন ইলোপ তাঁর উইন্ডোজ প্রীতির ব্যাখা দিয়েছেন। অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে জনপ্রিয়তার শীর্ষে গুগলের অ্যান্ড্রয়েড। নকিয়ার অ্যান্ড্রয়েডে না যাওয়ার কারণ স্যামসাং! অ্যান্ড্রয়েড ফেলে উইন্ডোজ বেছে নেওয়ার কারণটি জানালেন নকিয়ার প্রধান নির্বাহী স্টিফেন ইলোপ।

অ্যান্ড্রয়েডনির্ভর স্মার্টফোন বাজারে এনে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিষ্ঠান স্যামসাং বাজারের বিশাল অংশ দখল করেছে অথচ সুযোগ থাকা সত্ত্বেও ফিনল্যান্ডের মুঠোফোন নকিয়া কেন অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মে যায়নি? এ প্রশ্ন অনেকের। সম্প্রতি এ প্রশ্নেরই উত্তর দিয়েছেন স্টিফেন ইলোপ। তাঁর উত্তর হচ্ছে, নকিয়ার অ্যান্ড্রয়েডে না যাওয়ার কারণ হচ্ছে স্যামসাং। অ্যান্ড্রয়েডের বদলে নকিয়া বেছে নিয়েছে উইন্ডোজ প্ল্যাটফর্মকে আর বাজারে জনপ্রিয়তা না পেয়ে ক্ষয়িষ্ণু নকিয়া নেমে গেছে স্মার্টফোনের বাজারে সেরা দশের তালিকার সবার শেষে।

অনেকেই মনে করেন, নকিয়া যেভাবে উদ্ভাবনী হার্ডওয়্যার তৈরি করে তার সঙ্গে অ্যান্ড্রয়েডই মানানসই। অবশ্য, নকিয়া প্রধান নির্বাহী স্টিফেন ইলোপ বললেন ভিন্ন কথা। ইলোপের মতে, নকিয়া সঠিক সিদ্ধান্তই নিয়েছে। অ্যান্ড্রয়েডের বদলে উইন্ডোজ পছন্দের কারণ সম্পর্কে তিনি বলেন, একটি নির্দিষ্ট হার্ডওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের অ্যান্ড্রয়েডপ্রীতিতে তিনি উদ্বিগ্ন ছিলেন। তাঁর কাছে মনে হয়েছিল ওই প্রতিষ্ঠানটি অ্যান্ড্রয়েডে প্রতিনিধিত্ব করবে।

চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিক অর্থাত্ এপ্রিল থেকে জুন এই তিন মাসে ৭৪ লাখ লুমিয়া স্মার্টফোন বিক্রি করেছে প্রতিষ্ঠানটি যা ২০১২ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিকের চেয়ে ৩২ শতাংশ বেশি। লুমিয়া সিরিজের বেশ কয়েকটি মডেলের স্মার্টফোনের দাম সাশ্রয়ী করে ফেলায় নকিয়ার লাভ কমে গেছে। অ্যান্ড্রয়েডের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে থাকলেও উইন্ডোজ ফোনে ভবিষ্যত্ দেখছেন নকিয়ার প্রধান নির্বাহী।

নকিয়ার লুমিয়া সিরিজের সর্বশেষ স্মার্টফোন ১০২০ দিয়ে প্রতিষ্ঠানটি প্রমাণ করেছে এখনও উদ্ভাবনী পণ্যের ক্ষেত্রে ধারা অব্যাহত রেখেছে প্রতিষ্ঠানটি তবে মাইক্রোসফটের সীমিত আগ্রহ আর নিয়মিত আপডেটের অভাবেই বাজারে উইন্ডোজ ফোন বিক্রি কমছে বলেই বাজার বিশ্লেষকেরা মনে করছেন। ২০১১ সালে অ্যাপলের আইওএস ও গুগলের অ্যান্ড্রয়েডের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে পড়ে সিমবিয়ান প্ল্যাটফর্ম ছেড়ে দেওয়ার বিষয়টি উপলব্ধি করেন নকিয়ার প্রধান নির্বাহী। তখন তিনি প্ল্যাটফর্ম হিসেবে উইন্ডোজকে বেছে নেন। নকিয়াতে যোগ দেওয়ার আগে তিনি মাইক্রোসফটে কাজ করেছিলেন। লোকসানে ডুবতে বসা নকিয়ার ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য মাইক্রোসফটে বেছে নিলেও গত দুই বছরে নকিয়ার ভাগ্যে বড় পরিবর্তনের হাওয়া লাগেনি। নকিয়ার শুভাকাঙ্খী থেকে শুরু করে প্রযুক্তি বিশ্লেষকেরা পর্যন্ত নকিয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

কিন্তু অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মে নকিয়া যেতে চাইলে তা দেরি হয়ে যাবে যার ফলে বাজারে প্রতিনিধিত্ব করা সম্ভব হবে না। এ সিদ্ধান্তটি তখন নেওয়া সম্ভব হয়েছিল বলে খুশি হয়েছেন ইলোপ। ইলোপ বলেন, এখনকার অ্যান্ড্রয়েড বাজারে দিকে তাকালে দেখা যাবে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের একাধিক অসাধারণ অ্যান্ড্রয়েডনির্ভর স্মার্টফোন রয়েছে কিন্তু একটি প্রতিষ্ঠান অ্যান্ড্রয়েডের বাজারে রাজত্ব করছে। ইলোপের মতে, অ্যাপলের আইওএসের পর মানুষের পছন্দের তালিকায় রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ও স্যামসাংয়ের পণ্য।

এক্ষেত্রে অন্যান্য অ্যান্ড্রয়েডফোন নির্মাতারা ম্লান হয়ে গেছে। ইলোপ আরও জানিয়েছেন, নতুন করে চ্যালেঞ্জ নিয়ে উইন্ডোজ প্ল্যাটফর্মকে জনপ্রিয় করা ও বাজারে শ্রেষ্ঠত্বের আসন দখল করা খুব কঠিন। নকিয়া বর্তমানে উইন্ডোজফোনের বাজারে ভালো করছে বলেও জানান তিনি।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close