স্বদেশ জুড়ে

মায়ের আসনে রংপুরে প্রার্থী হচ্ছেন জয়: ছেলেকে পরিচয় করিয়ে দিতে স্বপরিবারে পীরগঞ্জ যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শীর্ষবিন্দু নিউজ: সদ্য দেশে ফেরা আমেরিকা প্রবাসী ছেলে সজীব আহমেদ ওয়াজেদ জয় মা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছেড়ে দেয়া রংপুরে আসনে প্রার্থী হচ্ছেন। আওয়ামীগের রংপুর শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা এরকমই আভাস দিলেন। আর ছেলেকে রংপুরের পীরগঞ্জের লোকজনদের সাথে পরিচয় করিয়ে দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বপরিবারে শ্বশুড়বাড়ি যাচ্ছেন বুধবার সকালে।

সাড়ে চার বছর পর আগামীকাল বুধবার শ্বশুরবাড়ির এলাকা রংপুরের পীরগঞ্জ যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামীকাল সকাল ১০টায় হেলিকপ্টারযোগে প্রধানমন্ত্রীর পীরগঞ্জ পৌঁছার কথা। ছেলে সজিব ওয়াজেদ জয় ও মেয়ে সায়মা হোসেন পুতুলও তাঁর সঙ্গে থাকবেন। পীরগঞ্জের কাঁচদহঘাটে করতোয়া নদীর ওপর নির্মিত ওয়াজেদ মিয়া সেতুসহ কয়েকটি স্থাপনা উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

সেখানে এক জনসভায় তাঁর ভাষণ দেওয়ারও কথা রয়েছে। সেতুটি এর আগে ‘কাঁচদহ করতোয়া সেতু’ নামে উদ্বোধন করা হয়েছিল। গত আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে ১৯৯৯ সালের ১৩ মে সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু সেতুর নির্মাণকাজ উদ্বোধন করেন। সেতুর পাঁচটি পিলার নির্মিত হওয়ার পর সরকার পরিবর্তনের কারণে কাজ বন্ধ হয়ে যায়। এরপর ২০১১ সালের ২০ মার্চ সেতুটির নাম বদলে প্রধানমন্ত্রীর প্রয়াত স্বামী পরমাণুবিজ্ঞানী এম এ ওয়াজেদ মিয়ার নামে নামকরণ করে সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী আবুল হোসেন এটি উদ্বোধন করেন।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, ওয়াজেদ মিয়া সেতু উদ্বোধন ছাড়া প্রধানমন্ত্রী পীরগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনিক ভবন ও মেরিন একাডেমীর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন এবং পৌরসভার নামফলক উন্মোচন করবেন। এ ছাড়া পীরগঞ্জের সমাবেশ থেকে রংপুরের আলমনগরে টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট, পুরাতন রেডিও সেন্টারে রংপুর বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় ভবন, সার্কিট হাউসের বর্ধিত ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও রংপুর নগরের রাধাবল্লভে আঞ্চলিক পাসপোর্ট ভবন ও পীরগঞ্জে জেলা পরিষদ ডাকবাংলো ভবন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী তাঁর শ্বশুরবাড়ি পীরগঞ্জের লালদীঘির ফতেহপুরে অবস্থান করবেন। এ সময় তিনি প্রয়াত স্বামী এম এ ওয়াজেদ মিয়ার কবর জিয়ারত করবেন এবং দোয়া মাহফিলে যোগ দেবেন। বেলা দুইটায় পীরগঞ্জ সরকারি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে ২০০৮ সালের নভেম্বরে জাতীয় নির্বাচনের আগে শেখ হাসিনা পীরগঞ্জ গিয়েছিলেন।

গতকাল দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে রংপুর প্রেস ক্লাবে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে নেতারা এ ইঙ্গিত  দেন। নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রংপুর-৬ (পীরগঞ্জ) আসন থেকে নির্বাচিত হন। এ আসনটি মূলত প্রধানমন্ত্রীর শ্বশুরবাড়ি এলাকা। মতবিনিময় সভায় রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রেজাউল করিম রাজু বলেন, আগামী ৩১শে জুলাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরসঙ্গী হচ্ছেন তার পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়। জনসভা সফল করতে জেলা আওয়ামী লীগ এবং পীরগঞ্জ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আগামীতে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না এলে পতাকা ওড়ানো গাড়িতে শুধু রাজাকার দেখা যাবে। আওয়ামী লীগ এ দেশের যে উন্নয়ন করেছে বিগত চারদলীয় জোট সরকার তা করেনি। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের মনোনয়ন যে কেউ চাইলে পায় না। কিন্তু আমরা চাই, এ অঞ্চলের মানুষ চায়, সারা দেশের মানুষ চায় জয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুন এবং সেটি রংপুর-৬ আসন থেকে। অন্য এক প্রশ্নের জন্য তিনি বলেন, জয় ইতিমধ্যে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করে দিয়েছেন। অবশ্যই তিনি আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করবেন। সংবাদ সম্মেলনে রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মমতাজ উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোতাহার হোসেন মওলাসহ অন্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close