Featuredদুনিয়া জুড়ে

নিয়ম কড়াকড়ি হচ্ছে এভারেস্ট জয়ে

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

দুনিয়া জুড়ে নিউজ ডেস্ক: মাউন্ট এভারেস্ট জয়ের অভিযান খুব কাছ থেকে পর্যবেক্ষণ করা হবে আগামী বছর থেকে । বিশ্বের সবচেয়ে উচু এ পর্বত শৃঙ্গের চূড়া জয়ের নিয়ম-কানুনও কড়াকড়ি করতে যাচ্ছে নেপাল সরকার। এ নিয়ে কাজও শুরু করে দিয়েছে দেশটির প্রশাসন।

নেপালের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রথমবারের মতো এভারেস্টের বেস ক্যাম্পে একটি সরকারি দল অবস্থান করবে। তারা পর্বত আরোহণ পর্যবেক্ষণ করা ছাড়াও আরোহী দলকে সহায়তা দেবেন এবং উদ্ধার অভিযান ও পরিবেশ রক্ষায় সহায়তা করবেন। শেরপা ও পর্বতারোহীদের মধ্যে হাতাহাতিসহ বিশ্বের উচ্চতম এ পর্বত শৃঙ্গের স্লোপে (ঢালে) সম্প্রতি অনাকাঙ্ক্ষিত কিছু ঘটনার পরেই এ ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছে নেপাল সরকার।

পর্বত অভিযান দেখভালকারী নেপালের পর্যটন শিল্প বিভাগের প্রধান পুরনা চান্দ্রা ভট্টারাই বলেন, এভারেস্টের বেস ক্যাম্পে সরকারের একটি স্থায়ী কর্তৃপক্ষ (মেকানিজম) প্রয়োজন…(যেটি) পর্বতারোহীদের কর্মকাণ্ড নিয়ন্ত্রণ করবে। এভারেস্ট জয়ের বিভিন্ন বিষয় দেখভালকারী এ কর্তৃপক্ষ সমন্বিত সেবা কেন্দ্র (ইনটিগ্রেটেড সার্ভিস সেন্টার) নামে কার্যক্রম চালাবে বলে জানা যায় ভট্টারাইয়ের বক্তব্য থেকে। তিনি জানান, এ কেন্দ্র যোগাযোগ ও নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট সেবা দিয়ে পর্বত আরোহীদের সহায়তা করবে। আগামী বছরের বসন্তকাল থেকে ওই দলটি বেস ক্যাম্পে প্রশাসনের প্রতিনিধিত্ব করবে।

পর্যবেক্ষকরা বলেছেন, রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে পর্বত আরোহণের কর্মকাণ্ড নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হয়ে পড়ছিল। ভট্টারাই বলেন, যখন মাঠে (স্থানে) সরকার উপস্থিত থাকবে, সেটি ‘আইন লঙ্ঘন শাস্তিযোগ্য’ এ বার্তাকে পরিষ্কার করবে। বর্তমান বিধানে অভিযানের সময় প্রতিটি আরোহী দলের সঙ্গে একজন সরকারি কর্মকর্তা লিঁয়াজোকারী হিসেবে কাজ করেন। কিন্তু এ নিয়ে বেশ বিতর্ক রয়েছে। অভিযোগ রয়েছে, লিঁয়োজা কর্মকর্তা অভিযানের দেখভাল করতে পর্বতে যাওয়া তো দূরের কথা তারা কাঠমান্ডু ছাড়েন না।

ভট্টারাই জানান, পর্বতে লিঁয়োজা কর্মকর্তারা যায় না বললেই চলে। তারা শুধু অভিযাত্রী দলের কাছে দায়বদ্ধ, সরকারের কাছে নয়। তিনি জানান, সমন্বিত সেবা কেন্দ্রের কর্মকর্তারা লিঁয়াজো কর্মকর্তাদের কাজটি করবে। তারা পর্বত আরোহণের অনুমতিপত্র, কেউ আসলে এভারেস্টের চূড়ায় উঠেছেন কিনা সেটি যাচাই করবেন।

ভট্টারাই বলেন, কেউ এভারেস্ট জয় করছেন কিনা সেটি জানার জন্য কাঠমান্ডু যেতে হয় এবং তারপরেই সারা বিশ্ব জানে। কিন্তু এখন এটার পরিবর্তন আসবে। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৮ হাজার ৮৪৮ মিটার ( ২৯ হাজার ২৯ ফুট) উচু এভারেস্ট জয় করতে প্রতিবছর ৩০টির বেশি দল চেষ্টা চালায়। বিশ্বের সবচেয়ে উচু এ পর্বত শৃঙ্গ পৃথিবীর কেন্দ্র থেকে পরিমাপের ভিত্তিতে বিশ্বের পঞ্চম উচু পর্বত। এটি হিমালয়ের মাহালানগুর খণ্ডে অবস্থিত। আন্তর্জাতিক সীমানা অনুযায়ী চীন ও নেপালের মধ্যে পড়েছে এভারেস্টের চূড়া।

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close