Featuredস্বদেশ জুড়ে

রাজনীতির মাঠে জয়: অনলাইনে সরব ভুমিকা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শীর্ষবিন্দু নিউজ: এবার বিএনপি’র ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রধানমন্ত্রীপুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়। খালেদা জিয়ার দুই ছেলের সমালোচনা করে বিএনপির ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রধানমন্ত্রীপুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টায় তার ফেসবুক পেজে দেয়া এক পোস্টে  সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া এবং তার পরিবারের নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। প্রকাশিত পোস্টে লক্ষ্যণীয় বিষয় হচ্ছে, তারেক রহমানকে কোকোর ভাই বলে সম্বোধন করেন তিনি।

তিনি বলেছেন, ‘কোকো`র ভাই তারেকের বিরুদ্ধেও এফবিআই অন্য একটি মামলায় সাক্ষ্য দিয়েছে। বিএনপির নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, এই কি সত্যিই বিএনপি`র ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব? বিএনপিতে কি কোন উপযুক্ত নেতা নেই যারা তাদের দলকে নেতৃত্ব দিতে পারেন? বিএনপির এই নেতৃত্বের প্রভাবের অধীনে দেশের কি অবস্থা হয় তা বিএনপি`র পূর্ববর্তী শাসনামলে আমরা দেখেছি।

আরাফাত রহমান কোকোর পাচার করা অর্থ আনাকে ‘নাটক’ আখ্যায়িত করে বিএনপি নেতাদের বক্তব্যের জবাবে এই স্ট্যাটাস দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী জয়। অর্থপাচারের মামলায় আদালতে দণ্ডিত কোকোর বড় ভাই তারেক রহমানের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগে মামলা বিচারাধীন। বিএনপির দাবি, জিয়া পরিবারকে ‘হেনস্তা’ করার উদ্দেশ্যে খালেদার দুই ছেলের বিরুদ্ধে এই মামলা করা হয়েছে।

সজীব ওয়াজেদ জয়ের দেয়া পোস্ট:   The BNP has claimed that the return of Arafat Rahman Koko`s money was just a stage managed drama. It was not the Government of Bangladesh that returned the money. It was a foreign Government, the Government of Singapore. The US FBI testified against Koko. The FBI has also testified against Koko`s brother Tarek in another case. This is shameful for us as a nation. How does it look when foreign Governments file cases against the former Prime Minister`s family?

Is this truly the future leadership of the BNP? Does the BNP not have any good people who can lead their party? We have already seen the fate of country under the influence of this leadership during the BNP`s last term. The country cannot afford to have another five years of Hawa Bhaban.
বিএনপি দাবী করছে যে, আরাফাত রহমান কোকোর দুর্নীতির টাকা ফেরত আনা একটি সাজানো নাটক।

বাংলাদেশের সরকার টাকা ফেরত আনেনি। একটি বিদেশি সরকার-সিঙ্গাপুর সরকার দুর্নীতির টাকাটি ফেরত পাঠায়। আমেরিকান এফবিআই কোকো`র বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিয়েছে। কোকো`র ভাই তারেকের বিরুদ্ধেও এফবিআই অন্য একটি মামলায় সাক্ষ্য দিয়েছে। এটা জাতির জন্য লজ্জার। বিদেশি সরকারেরা যখন সাবেক প্রধানমন্ত্রীর পরিবারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে, তখন তা কেমন দেখায়?

এই কি সত্যিই বিএনপি`র ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব? বিএনপিতে কি কোনো ভালো লোক নেই যিনি তাদের দলকে নেতৃত্ব দিতে পারেন? বিএনপি শেষবার যখন ক্ষমতায় ছিল তখন বিএনপির এই নেতাদের প্রভাবের অধীনে দেশের অবস্থা কি হয়েছিল তা আমরা দেখেছি। বাংলাদেশ কোনোভাবেই আগামী ৫টি বছর হাওয়া ভবনের অধীনে যেতে পারে না।

বিদেশী সরকার যখন সাবেক প্রধানমন্ত্রীর পরিবারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে, তখন তা কেমন দেখায়? তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, এই কি সত্যিই বিএনপির ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব? বিএনপিতে কি কোন উপযুক্ত নেতা নেই যারা তাদের দলকে নেতৃত্ব দিতে পারেন? বিএনপির এই নেতৃত্বের অধীনে দেশের কি অবস্থা হয় তা বিএনপির পূর্ববর্তী শাসনামলে আমরা দেখেছি। বাংলাদেশ কোনভাবেই আগামী পাঁচ বছর হাওয়া ভবনের শাসন ব্যবস্থায় ফিরে যেতে পারে না।

এর আগে গত ২৫শে আগস্ট অপর এক মন্তব্যে তিনি জানিয়েছেন, ইন্টারনেট ব্যবহারের মূল্য সংক্রান্ত হালনাগাদ তথ্য আমি দিচ্ছি। সম্প্রতি আমাদের সরকার ইন্টারনেটের পাইকারি মূল্য ১৮,০০০ টাকা থেকে ৪,৮০০ টাকায় হ্রাস করেছে।

গত ৪ বছরে আওয়ামী লীগ সরকার ইনটারনেটের পাইকারি মূল্য ৮০,০০০ টাকা থেকে ৪,৮০০ টাকায় হ্রাস করে, শতকরা হিসাবে এ হ্রাসের পরিমান ৯৪%। ইন্টারনেটের খুচরা মূল্যও এ সময়ে নেমে আসে এবং আপনি প্রায় ১৫০০ টাকায় ১ মেগাবাইট সংযোগ পেতে পারেন। তা সত্ত্বেত্ত, আমি এই বিষয়ে আরও মূল্য কমানোর পরিকল্পনা নিয়েছি। আমার লক্ষ্য হলো, ৫ এমবি সংযোগ ৪০০০ টাকায় সহজলভ্য করা যাতে ১ মেগাবাইট সংযোগ হবে ১০০০ টাকার নিচে। আমাদের এ সংক্রান্ত পরিকল্পনা ইতোমধ্যে রয়েছে এবং আওয়ামী লীগ যদি পুনঃনির্বাচিত হয় তবে পরিকল্পনামত অচিরেই এ নতুন মূল্য বাস্তবায়ন হবে।

জয় দেশের বাইরে থেকেও যেন খুব বেশি দূরে নন মানুষের কাছ থেকে। সোসাল মিডিয়ার কল্যাণে মানুষের পাশেই আছেন তিনি। ফেইসবুকে আর ট্যুইটারে কয়েক দিন পরপর নতুন মন্তব্য করে জানিয়ে দিচ্ছেন রাজনীতিতে তার উপস্থিতি। সাধারণ মানুষ না পেলেও তরুণ প্রজন্মের ভক্ত ও সমালোচকরা পাচ্ছেন তার এইসব তথ্য ও মন্তব্য। বিএনপি ও তার আগামী নেতৃত্ব নিয়ে নতুন মন্তব্য করেছেন জয়।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close