Featuredঅর্থনীতি

অন্তর্ভূক্তিমূলক অর্থনীতির পথে বাংলাদেশ

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শীর্ষবিন্দু নিউজ: মালয়েশিয়ায় অ্যালায়েন্স অব ফাইন্যন্সিয়াল ইনক্লুশনের (এএফআই) গ্লোবাল ফোরামে বাংলাদেশের অন্তর্ভূক্তিমূলক অর্থনৈতিক কার্যক্রমের দিক তুলে ধরলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান। তিনি তার বক্তব্যে গত সাড়ে চার বছরে ব্যাংকিং খাত কতটা মানবিক হয়েছে, তারও বিস্তারিত তুলে ধরেন। ছয় দিনের এএফআই সম্মেলনে যোগ দিতে বর্তমানে মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর।

মালয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর সচিবালয়ের মহাব্যবস্থাপক এএফএম আসাদুজ্জামান টেলিফোনে বাংলানিউজকে বলেন, গভর্নর তার উপস্থাপনায় বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাতের মানবিক দিক তুলে ধরেন বলেন, বাংলাদেশের সোয়া দুই কোটি মানুষ নতুন করে ব্যাংকিং সেবার আওতায়  এসেছেন। ২০০৮ সালে ব্যাংক খাতে মোট আমানতকারীর সংখ্যা ছিলেন ৩ কোটি ৭৫ লাখ ৭৩ হাজার ৩৩৯ জন। ২০১৩ সালের আগস্ট মাসের হিসাবে আমানতকারীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ কোটির কিছু ওপরে। অর্থাৎ ২ কোটি ১১ লাখ ৮৮ হাজার ৮১২ জন নতুন আমানতকারী ব্যাংকিং চ্যানেলে এসেছেন।   আতিউর বলেন, দেশে বর্তমানে মোট ৫৬টি ব্যাংক কার্যরত। তাদের মোট শাখার সংখ্যা ৮ হাজার ৪২৭টি। অপরদিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের তাগিদে পল্লী শাখায় যেতে বাধ্য হচ্ছে ব্যাংকগুলো। আমরা অন্তর্ভূক্তিমূলক অর্থনীতির ক্ষেত্রে অনেক দূর এগিয়ে গেছি।

গভর্নর বলেন, আমরা ব্যাংকিং সেবার বাইরে থাকা জনগোষ্ঠীকে ব্যাংকিং সেবার মধ্যে আনতে ১০ টাকায় ব্যাংক হিসাব খোলার নির্দেশ দিয়েছে। সেখানে ১ লাখ ৩১ হাজার হিসাব খুলেছেন মানুষ। এটি অব্যাহত রয়েছে। দেশের গর্বিত খাত তৈরি পোশাক খাতের শ্রমিকদের জন্যও ১০ টাকায় ব্যাংক হিসাব খোলার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, ছয় দিনের সফরে তিনি অ্যালায়েন্স অব ফাইন্যান্সিয়াল ইনক্লুশনের গ্লোবাল ফোরাম-২০১৩ এ যোগ দিয়েছেন। তার সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের চেইঞ্জ ম্যানেজমেন্ট উপদেষ্টা আল্লাহ মালিক কাজমী ও গভর্নর সচিবালয়ের মহাব্যবস্থাপক এএফএম আসাদুজ্জামানসহ একটি দল ওই সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন। আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর তারা দেশে ফিরবেন বলে জানা গেছে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close