Featuredস্বদেশ জুড়ে

গুগল ম্যাপে দেখাচ্ছে না আলোচিত ফেলানী রোড

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শীর্ষবিন্দু নিউজ: গুগল ম্যাপের কয়েকজন ব্যবহারকারী সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে নিহত ফেলানীর নামে গুলশানে ভারতীয় হাই কমিশনারের সামনের সড়কের নাম বদলে দিলেও আগের নামই বহাল রেখেছে গুগল। গুগল ম্যাপে ফেলানী রোড দিয়ে খোঁজ করলে গুলশানের ১৪২ সড়কটিকেই দেখাচ্ছে।

গুগল ম্যাপে সাধারণত কোন দেশের স্থান-সড়ক ইত্যাদির স্থায়ী নামকরণ হয়ে থাকে সেই দেশের স্থান-সড়কের আনুষ্ঠানিক নাম অনুযায়ী। নাম সম্পাদন করলে গুগল ম্যাপের ‘সার্স অপশনে’ গিয়ে সে নাম দিয়ে খুঁজলে তা দেখা যেতে পারে। তবে পর্যালোচনা ছাড়া গুগল ওই নাম স্থায়ী করে না। গুগল ম্যাপ ব্যবহারকারী যে কেউ প্রয়োজনমত স্থান বা সড়কের নাম সম্পাদনা করতে পারেন। আবার কেউ ভিন্ন নামেও তা পুনর্স্থাপন করতে পারেন।

বাংলাদেশি কিশোরী ফেলানী ২০১১ সালে কুড়িগ্রামের অনন্তপুর সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে নিহত হন। কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার দক্ষিণ রামখানা ইউনিয়নের বানার ভিটা গ্রামের কিশোরী ফেলানী ২০১১ সালের ৭ জানুয়ারি বাবার সঙ্গে ভারত থেকে বাড়ি ফিরছিল। কিছুদিন পর তার বিয়ের কথা ছিল। অনন্তপুর সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে নিহত হয়ে কাঁটাতারের বেড়ায় ৫ ঘণ্টা তার লাশ ঝুলে থাকার ছবি দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে ব্যাপক সমালোচনা হয়।

কাঁটাতারের বেড়ায় ঝুলে থাকা ফেলানীর মৃতদেহ তখন বিশ্বব্যাপী সমালোচনার ঝড় তুলেছিল। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলোর দাবি আর ঢাকার বারবার আহ্বানের পর বিএসএফ ফেলানী হত্যাকাণ্ডের বিচারের উদ্যোগ নেয়। তবে বিএসএফের বিশেষ আদালত গত ৬ সেপ্টেম্বর ফেলানী হত্যায় অভিযুক্ত বিএসএফের হাবিলদার অমিয় ঘোষকে নির্দোষ বলে রায় দেয়ার পর বাংলাদেশে তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়।

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে এই রায়ে অসন্তোষ জানানোর পর শুক্রবার ভারত জানিয়েছে, এই রায় পুনর্বিবেচনা করা হবে। রায়ের পরপরই বৃহস্পতিবার ফেইসবুকে ঢাকায় ইন্ডিয়ান হাই কমিশনের সামনের রাস্তার নাম ফেলানী রোড করার দাবিতে ফেইসবুকে একটি পাতা খোলা হয়। এই দাবির মধ্যেই গুগল ম্যাপে ফেলানী রোড সংযোজন করা হয় যা গণমাধ্যমে ব্যাপকভাবে প্রকাশের পর এখন আর সেটি দেকা যাচ্ছে না গুগল ম্যাপে। ফেলানী রোড দিয়ে খোঁজা হলে দেখা যায়, গুলশানে ভারতীয় হাই কমিশনের সামনের ১৪২ নম্বর সড়ক ফেলানী রোড’ নামে দেখাচ্ছে। সম্ভবত: সড়কের ওই নাম সম্পাদনা করার কারণে তা আর দেখাচ্ছে না।

 

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close