দুনিয়া জুড়ে

কেনিয়ায় জনাকীর্ণ শপিং মলে সন্ত্রাসী হামলা

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবির একটি জনাকীর্ণ শপিং মলে সন্ত্রাসী সংগঠন আল-শাবাবের বন্দুকধারীদের নির্বিচার গুলিতে ২ ভারতীয় নাগরিকসহ অন্তত ৫৯ জন নিহত হয়েছে।

কেনিয়ার প্রেসিডেন্ট উহুরু কেন্যাত্তার কার্যালয় জানিয়েছে, সন্ত্রাসী হামলায় ৫৯ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন প্রায় দুইশ` লোক। এদের মধ্যে প্রেসিডেন্ট পরিবারের সদস্যরাও রয়েছেন। তবে তারা প্রেসিডেন্টের কেমন স্বজন এ ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি। শনিবার রাতে জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া বিশেষ ভাষণে প্রেসিডেন্ট উহুরু কেন্যাত্তা বলেন, নিরাপত্তা বাহিনী হামলাকারীদের প্রতিরোধের চেষ্টা চালাচ্ছে এবং মার্কেটটি নিয়ন্ত্রণে নিতে অভিযান শুরু করেছে।

তিনি বলেন, অপরাধীরা যেখানেই থাকুক না কেন তাদের খুঁজে বের করবে নিরাপত্তা বাহিনী এবং এই জঘন্য কৃতকর্মের জন্য তাদের শাস্তি দেওয়া হবে। এছাড়া তিনি ব্যক্তিগতভাবে পরিবারের সদস্য হারিয়েছেন বলে ভাষণে উল্লেখ করেন।।

রোববার আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে, শনিবার দুপুরে নাইরোবির জনাকীর্ণ ও অভিজাত শপিং মল ওয়েস্টগেটের ভেতরে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী গুলি ছোঁড়ে বন্দুকধারীরা। এ সময় কয়েকটি হাতবোমারও বিস্ফোরণ ঘটায় সন্ত্রাসীরা। নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে বন্দুকধারী দলের বেশ কিছুক্ষণ গুলিবিনিময় হলেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসায় প্রেসিডেন্ট উহুরু কেন্যাত্তার নির্দেশে সেনাবাহিনীর দু’টি বিশেষ কন্টিনজেন্টস অভিযানে যোগ দিয়েছে।

ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সৈয়দ আকবরুদ্দিন জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে দু’জন ভারতীয় নাগরিক ছিলেন এবং দেশটির আরও ৪ জন নাগরিক আহত হয়েছেন। এই হামলা সোমালিয়ার সন্ত্রাসী সংগঠন আল-শাবাবই চালিয়েছে বলে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলোকে নিশ্চিত করেছে সংগঠনটির একজন জ্যেষ্ঠ নেতা। অবশ্য কতোজন সন্ত্রাসী এ হামলায় অংশ নিয়েছে স্পষ্ট করেনি তারাও।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলোতে প্রকাশিত ভিডিও ও ছবিতে দেখা যায়, অনেক লোক জানালা দিয়ে বিশেষ ক্রেনের মাধ্যমে নেমে আসছেন। শপিং মলের ভেতরে থাকা অনেক লোক মাথা নিচু করে নিরাপদ স্থানে সরে আসছেন। এ সময় সবার চোখে মুখেই ছিল আতঙ্কের ছাপ।

বার্তা সংস্থা বিবিসির নিরাপত্তা বিষয়ক প্রতিবেদক ফ্রাংক গার্ডনার জানিয়েছেন, হামলাকারী দলে শাবাবের নেতৃস্থানীয় পর্যায়ের একজন নারী সদস্যও রয়েছেন। এই হামলায় মোট কতোজন বিদেশি নাগরিক হতাহত হয়েছেন তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। তবে যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সে দেশের নাগরিকরা এ হামলার শিকার হতে পারে বলে তারা আশঙ্কা করছেন।

প্রশাসনিক কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, হামলায় কতোজন সন্ত্রাসী অংশ নিয়েছে তা জানা না গেলেও ইতোমধ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানে একজন নিহত হয়েছে এবং আরও চারজন আটক রয়েছে। বাকিরা কোনো দোকানে আত্মগোপন করে থাকতে পারে। এছাড়া, বন্দুকধারীদের আটক করা না গেলেও তাদের মার্কেটের ভেতরে কোণঠাসা করে ফেলা হয়েছে বলে দাবি করেছে প্রশাসন। তবে মার্কেটের ভেতরে এখনও অনেকে বেসামরিক নাগরিক জিম্মি রয়েছেন বলে জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যমগুলো।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর জানিয়েছে, এই হামলায় তাদের কয়েকজন নাগরিক আহত হয়েছে।

রোববার সকালে কেনিয়ার জাতীয় দুর্যোগ পরিদপ্তর এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ঠিক কতো জন মানুষ মার্কেটের ভেতরে জিম্মি রয়েছেন সেটা এখনও অজ্ঞাত। তবে তারা বিভিন্ন স্থানে আটকা পড়েছেন। বন্দুকধারীদের একটি দোকানেই কোণঠাসা করে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে দুর্যোগ পরিদপ্তরও।

ফরাসি প্রেসিডেন্টের কার্যালয় জানিয়েছে, দু’জন ফরাসি নাগরিক এ হামলার শিকার হয়েছেন। তবে তারা আহত নাকি নিহত এ ব্যাপারে কিছু স্পষ্ট করা হয়নি। এছাড়া, নিহতদের মধ্যে দু’জন কানাডিয়ান নাগরিক ও দু’জন ভারতীয় নাগরিক ছিলেন বলে জানা গেছে।

এদিকে, শপিং মলের ভেতরে থাকা একজন পুলিশ কর্মকর্তা সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, বন্দুকধারীদের ‘নাকুমাট সুপার মার্কেট’র ভেতরে কোণঠাসা করে ফেলা হয়েছে। তবে সব বন্দুকধারীই নাকুমাটে কোণঠাসা রয়েছে কিনা এ ব্যাপারটি স্পষ্ট করেননি তিনি।

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close