Featuredব্রিকলেন টু জিন্দাবাজার

সিলেটের ছড়া খাল উদ্ধারে সিটি মেয়র আরিফের অ্যাকশন

শীর্ষবিন্দু নিউজ: নগরীর গোয়ালীছড়া উদ্ধারে অভিযানে নেমেছে সিলেট সিটি করপোরেশন। মঙ্গলবার সকাল থেকে ছড়া উদ্ধারে নামে সিসিকের লোকজন। এতে নেতৃত্ব দেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দিনার খান হাসু।

প্রায় এক মাস আগে দায়িত্ব নেয়ার পর মেয়র আরিফ ছড়া উদ্ধারে পরিকল্পনামতো কাজ শুরু করার প্রস্তুতি নিয়েছিলেন। কিন্তু প্রবল বর্ষণে তীব্র জলাবদ্ধতা ও মানুষের ভোগান্তি দেখে এবার তিনি ‘অলআউট’ অ্যাকশনে নেমেছেন। কোন ছাড় নয়, যারাই পানি অপসারণের পথ রুদ্ধ করেছেন তাদের বিরুদ্ধে এখন থেকে প্রতিরোধে নামলেন তিনি।  যে কোন মূল্যে নগরীর সকল ছড়া ও খাল উদ্ধার করে নগরবাসীকে জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি দেবেন বলে জানিয়েছেন মেয়র আরিফ। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে গোয়ালীছড়ার খারপাড়া ও সোনারপাড়া অংশে উদ্ধার অভিযানে নামে সিলেট সিটি করপোরেশনের লোকজন। এসময় তারা ছড়া সংস্কার ও অবৈধ দখলদার চিহ্নিত করে তাদেরকে উচ্ছেদের কাজ শুরু করেন।

গতকাল তিনি বলে দিয়েছেন, কারও মুখের দিকে তাকিয়ে নয়, নগরবাসীকে স্বস্তি দিতে এ কাজ করতে হবে। এ কারণে গতকাল নিজে দাঁড়িয়ে ভেঙে দিয়েছেন ছড়ার উপর নির্মিত গার্ডওয়াল। পরিষ্কার করিয়েছেন ছড়ায় জমে থাকা ময়লা আবর্জনা।

রোববারের মাত্র কয়েক ঘণ্টার টানা বর্ষণে ডুবে যায় সিলেট নগরীর বেশ কয়েকটি এলাকা। ভয়াবহ এ জলাবদ্ধতার খবরে ঘরে বসে থাকতে পারেননি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। জলজট থেকে নগরবাসীকে মুক্তি দিতে নিজেই কোদাল ও খুন্তি হাতে নিয়ে কাজ শুরু করেন। বেশ কয়েকটি এলাকায় তাৎক্ষণিক অর্ধশতাধিক শ্রমিক নিয়োগ দেন। জলজটপ্রবণ এলাকায় নিজেই দাঁড়িয়ে কাজ করান। ফলে বিকালের দিকে নগরীর পানি কমে যায়। এতে ভোগান্তি থেকে আপাতত রেহাই পান নগরবাসী।

এসময় উপস্থিত সাংবাদিকদের সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী জানান, ছড়া ও খাল দখলকারী ব্যক্তি যতই প্রভাবশালী হোন না কেন তাদেরকে উচ্ছেদ করা হবে। হাতেগোনা কয়েক ব্যক্তির জন্য পুরো নগরীর লোকজন জলাবদ্ধতায় কষ্ট পেতে পারেন না। ছড়া ও খালের এক ইঞ্চি জায়গাও কেউ দখল করে রাখতে পারবে না বলে জানান মেয়র আরিফ।

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close