রাজনীতি

আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় দুই নেত্রীর ফোনালাপ

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: দেশের রাজনৈতিক সঙ্কট উত্তরণের লক্ষ্যে বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার টেলিফোন করার খবরকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে পরিবেশন করেছে বিশ্বের বিভিন্ন গণমাধ্যম।

ভারতের প্রভাবশালী পত্রিকা হিন্দু ‘খালেদা রিজেক্টস হাসিনাস টক অফার’ শিরোনামে লিখেছে, বাংলাদেশে সৃষ্ট অচলাবস্থা নিরসনের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার টেলিফোনে বিরোধদিলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে কথা বলেছেন। এতে তিনি নির্বাচনকালীন সরকার ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনা করতে তাকে সোমবার ডিনারের নিমন্ত্রণ জানিয়েছেন এবং বিরোধী দলের ডাকা ৬০ ঘণ্টার হরতাল প্রত্যাহারের অনুরোধ করেছেন।

তবে বেগম জিয়া ডিনারের নিমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, বিরোধীদলীয় জোট নেতাদের সঙ্গে তাকে এ ব্যাপারে আলোচনা করতে হবে। বেগম জিয়ার এক সহযোগী আরও বলেছেন, পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ীই রোববার সকাল থেকে হরতাল পালন করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর এক সহযোগী জানিয়েছেন নিমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করায় প্রধানমন্ত্রী হতাশ এবং উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তবে তিনি এখনও আশাবাদী বলে সহযোগী উল্লেখ করেছেন।

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট ‘বাংলাদেশী পিএম হাসিনা ইনভাইটস রাইভাল জিয়া টু ডিনার এমিড স্ট্রাইক থ্রেট’ শিরোনামে লিখেছে, সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সংকট নিরসনের লক্ষ্যে  বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওয়াজেদ বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে ডিনারের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। তবে হাসিনার পদত্যাগের মাধ্যমে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের পথ সুগম করার দাবি করা বেগম জিয়া আজ থেকে শুরু হওয়া তিন দিনের হরতাল প্রত্যাহার করতে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান প্রত্যাখ্যান করেছেন। প্রায় ৪০ মিনিটব্যাপী এ ফোনালাপ দুই নেত্রীর মধ্যে এক দশকের মধ্যে প্রথম আলাপ বলে পর্যবেক্ষকরা উল্লেখ করেছেন।

দি গালফ টুডে ‘বাংলা পিএম হোল্ডস রেয়ার টকস উইথ রাইভাল’ শিরোনামে লিখেছে, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে ডিনারের নিমন্ত্রণ জানিয়েছেন। শনিবার দুই নেত্রীর মধ্যে এক বিরল টেলিফোন আলাপের সময় প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান। আসন্ন সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে উদ্ভুত সঙ্কট নিরসনের লক্ষ্যেই প্রধানমন্ত্রী বিরোধীদলীয় নেত্রীকে টেলিফোন করেছিলেন।

পাকিস্তানের দি নিউজ ইন্টারন্যাশনাল ‘হাসিনা ওয়াজেদ, অপজিশন লিডার হোল্ড টকস’ শিরোনামে লিখেছে, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার এক বিরল টেলিফোন আলাপে বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে ডিনারের নিমন্ত্রণ জানিয়েছেন। আসন্ন সংসদ নির্বাচনকে নিয়ে উদ্ভূত সংকট নিরসনের লক্ষ্যেই প্রধানমন্ত্রী বিরোধীদলীয় নেত্রীকে ফোন করেছিলেন। দুই নেত্রীর মধ্যে এ টেলিফোন আলাপ এক দশকের মধ্যে প্রথম ঘটনা বলে পর্যবেক্ষকরা উল্লেখ করেছেন।

ইনিডয়ান এক্সপ্রেস সিনহুয়াকে উদ্ধৃত করে  ‘শেখ হাসিনা, খালেদা জিয়া হোল্ড টকস টু এন্ড পলিটিক্যাল ইমপাসে’ শিরোনামে লিখেছে তত্ত্বাবধায়ক সরকার নিয়ে সৃষ্ট অচলাবস্থা নিরসের লক্ষ্যে ক্ষমতাসীন এবং বিরোধী দলের মধ্যে সম্ভাব্য সংলাপের ব্যাপারে আলোচনার জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া শনিবার টেলিফোনে কথা বলেছেন। দুই নেত্রী একে অপরের সঙ্গে প্রায় ৩৭ মিনিট টেলিফোনে কথা বলেন। ২০০৯ সালের পর এটাই ছিল তাদের মধ্যে প্রথম সরাসরি কথা বলার ঘটনা।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close