Featuredস্বদেশ জুড়ে

অবরোধে সারা দেশে ট্রেন চলাচলে ব্যাহত: নাশকতার আশংকা

শীর্ষবিন্দু নিউজ: ১৮-দলীয় জোটের ডাকা ৪৮ ঘণ্টা অবরোধের প্রথম দিন আজ মঙ্গলবার বিভিন্ন রেলপথে নাশকতার ঘটনায় ট্রেন চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ট্রেন চলাচলের কর্মসূচিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। ঢাকার সঙ্গে চট্টগ্রাম ও সিলেটের রেল-যোগাযোগ কার্যত বন্ধ রয়েছে।

দুপুরে কমলাপুর স্টেশনে যান রেলমন্ত্রী মুজিবর রহমান। তিনি সেখানে সাংবাদিকদের বলেন, সকাল থেকে এ পর্যন্ত ২১টি ট্রেনের মধ্যে ১৭টি ট্রেন ঢাকার কমলাপুর স্টেশন ছেড়ে গেছে এবং ১৮টির মধ্যে ১৩টি ট্রেন ঢাকায় এসে পৌঁছেছে। সকাল থেকে ট্রেনের সময়সূচি বিপর্যয় হয়েছে কি না, এমন প্রশ্ন করা হলে মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, কোনো বিপর্যয় হয়নি। এটি খুব সামান্য বিষয়। আগামী দু-এক ঘণ্টার মধ্যে সব ঠিক হয়ে যাবে।

মুজিবর রহমান বলেন, রেলপথে নাশকতা ঠেকানোর জন্য আমি রেলমন্ত্রী, রেলের সব ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, রেল মন্ত্রণালয়সহ পুলিশ বাহিনীর সাহায্যে বিরতিহীনভাবে রেললাইন পাহারা দিচ্ছি। আমরা একদম অ্যালার্ট, কিন্তু এর মধ্যেও চোরাগোপ্তা হামলা চালিয়ে একটি মহল আমাদেরকে বিব্রত করা চেষ্টা করছে এবং দায়িত্ব পালনে বাধা দিচ্ছে। তিনি বলেন, রেলের অনেক ইঞ্জিন, বগি নষ্ট করেছে অবরোধকারীরা। কোটি কোটি টাকার সম্পদ নষ্ট করেছে তারা। জনগণের কাছে আমার বিচার রেললাইন, বগি ইঞ্জিন কার ক্ষতি করেছে। অন্যদিকে স্টেশন মাস্টার খায়রুল বশির বলেন, সকাল থেকে সোয়া ১১টা পর্যন্ত সব ট্রেন ঠিকমতো গেছে। এখন একটু ঝামেলা হচ্ছে।

রেলওয়ের নিয়ন্ত্রণকক্ষ থেকে জানানো হয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবার ইমামবাড়ি রেলস্টেশনের কাছে রেললাইন উপড়ে ফেলায় ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-সিলেট ও চট্টগ্রাম-সিলেট রুটে রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুমিল্লা, ফেনীসহ বিভিন্ন স্টেশনে যাত্রীবাহী আটটি এবং মালবাহী চারটি ট্রেন আটকা পড়েছে। এ ব্যাপারে রেলওয়ের পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক তাফাজ্জল হোসেন বলেছেন, বিভিন্ন জায়গায় অবরোধ ও নাশকতার কারণে পূর্বাঞ্চলে রেল চলাচল বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। বিভিন্ন স্টেশনে বেশ কয়েকটি ট্রেন আটকা পড়েছে বা যাত্রা বাতিল করা হয়েছে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপক সর্দার শাহাদাত আলী জানিয়েছেন, ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলায় অবরোধকারীরা রেললাইনের ফিসপ্লেট খুলে ফেলায় ময়মনসিংহ-মোহনগঞ্জ, ময়মনসিংহ-বিরিশিরি ও গৌরীপুর-শ্যামগঞ্জ রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে ঢাকার সঙ্গে উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণবঙ্গের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। সর্দার শাহাদাত আলী বলেন, রেলপথে নাশকতার কারণে ট্রেন চলাচলের কর্মসূচিতে কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়েছে। অনেক ক্ষেত্রে নিরাপত্তা ব্যবস্থা দেখে ধীরে ধীরে ট্রেন চালাতে হচ্ছে। এতে গন্তব্যে পৌঁছাতে সময় বেশি লাগছে।

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close