স্বদেশ জুড়ে

বর্ধিত হলো আরো ৭২ ঘণ্টার অবরোধ

শীর্ষবিন্দু নিউজ: ফের ৭২ ঘণ্টার অবরোধের ডাক দিয়েছে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট। আজ ভোর ছয়টা থেকে মঙ্গলবার ভোর ছয়টা পর্যন্ত সড়ক, রেল ও নৌপথে এ অবরোধ কর্মসূচি চলবে। গতকাল রাতে বিএনপির নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে অবরোধের ঘোষণা দেন দলটির দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। এর আগে বিরোধী জোটের ডাকা ৭১ ঘণ্টার অবরোধ শেষ হয় শুক্রবার ভোর পাঁচটায়। টানা তিন দিনের এ অবরোধে দেশব্যাপী ব্যাপক সহিংস ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ২৪ জনের মৃত্যু হয়। বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে পুরো যোগাযোগ ব্যবস্থা। নির্দলীয় সরকারের দাবি, একতরফা নির্বাচনের তফসিল বাতিল ও গ্রেপ্তার নেতাকর্মীদের মুক্তি দাবিতে অবরোধ কর্মসূচি দেয়া হয়েছে বলে রিজভী জানান।

১৭ নেতার বিরুদ্ধে মামলা: বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শাহবাগে বাসে আগুন দেয়ার ঘটনায় বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ শীর্ষ নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাত  পৌনে ১২ টার দিকে পুলিশের পক্ষ থেকে শাহবাগ থানায় ১৮ দলীয়  জোটের ১৭ নেতার বিরুদ্ধে মামলাটি করা হয়। মামলায় অজ্ঞাত আরও দুই জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এমএ জলিল জানান, এ পর্যন্ত ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। মামলার এজহারে উল্লেখ করা হয়, শাহবাগ শিশুপার্কের সামনে বাসটিকে লক্ষ্য করে পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করা হয়। ১৮ দলীয় জোটের নেতাদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ উস্কানি, পরিকল্পনা, ষড়যন্ত্র, সহায়তা ও  অর্থায়নে দুর্বৃত্তরা আলোচ্য মামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। এদিকে বিরোধী জোটের শীর্ষ নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের নিন্দা জানিয়েছেন বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া। গতকাল এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, যেসব নেতা প্রকাশ্যে জীবন যাপন করতে পারছেন না তাদের বিরুদ্ধে উস্কানির অভিযোগে মামলা করা হয়েছে।

মামলার অপর আসামিরা হলেন- বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক  হোসেন খোকা, বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও মির্জা আব্বাস, যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, ঢাকা মহানগর বিএনপি’র সদস্যসচিব আবদুস সালাম, বিএনপি নেতা আমানউল্লাহ আমান, বরকত উল্লাহ বুলু, সালাহউদ্দিন আহমেদ, ছাত্রদলের সভাপতি আবদুল কাদের ভূঁইয়া, ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল হক নাসির, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সভাপতি মাহিদুল ইসলাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা, ঢাকা মহানগর উত্তরের ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির রওশন, যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম ওরফে নীরব, যুবদলের মহানগর উত্তর সভাপতি মামুন হাসান এবং জামায়াতের ঢাকা মহানগরের নেতা ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ।

এ ছাড়া অজ্ঞাত আরও দুইজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। পরিকল্পিতভাবে গাড়ি পুড়িয়ে মানুষ হত্যার অভিযোগে শাহবাগ থানার এসআই  সোহেল রানা বাদী হয়ে মামলাটি করেন। মামলার বাদী এজাহারে বলেন, তিনি সন্ধ্যার দিকে মৎস্য ভবন ক্রসিংয়ে ডিউটিরত অবস্থায় ওয়্যারলেসে বাসে আগুন লাগার সংবাদ পান। পরে আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত বাসটি জব্দ তালিকা প্রস্তুত করে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়। অবরোধের সমর্থনে মানুষকে পুড়িয়ে হত্যার উদ্দেশে যাত্রীবাহী বাসে  পেট্রলবোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পরিকল্পিতভাবে মানুষ হত্যা, গুরুতর জখম, জানমালের ক্ষতিসাধনসহ জনমনে ভীতি ও আতঙ্ক সৃষ্টি করা হয়েছে। যা দণ্ডবিধির ৩২৬/৩০৭/৩০২/৩৪/১০৯/১১৪/৪৩৫/৪২৭ ধারাসহ ১৯৯৮ সালের বিস্ফোরক উপাদানাবলি আইনের ৩/৬ ধারার অপরাধ।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close