Featuredদুনিয়া জুড়ে

ইয়েমেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে হামলা: নিহত ২০ জন

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: ইয়েমেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে গাড়ি বোমা হামলায় এবং বন্দুকযুদ্ধে কমপক্ষে ২০ জন নিহত হয়েছে। রাজধানী সানায় অবস্থিত প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ভবনের অভ্যন্তরে এ ঘটনা ঘটে। মন্ত্রণালয়ের সূত্র এ খবর জানিয়েছে।

গত ১৮ মাসের মধ্যে এটাই সব থেকে ভয়াবহ হামলা। প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জানিয়েছেন, হামলার টার্গেট ছিল মন্ত্রণালয়ের হাসপাতাল। বন্দুকযুদ্ধে অধিকাংশ বন্দুকধারী নিহত এবং আহত হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে দেয়া বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, ভবনের ভেতরে চলমান নির্মাণ কাজের সুযোগ নিয়ে এ হামলা চালানো হয়েছে। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে আছে বলে তিনি জানান। কোন সংগঠন এখনও হামলার দায়ভার স্বীকার করেনি।

সেনাবাহিনীর সূত্র থেকে জানা যায়, জঙ্গি বন্দুকধারীসহ কমপক্ষে ২০ জন নিহত এবং কয়েক ডজন লোক আহত হয়েছে। ইয়েমেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আহতদের চিকিৎসার জন্য রক্ত দান করতে জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একাধিক সূত্র থেকে জানা গেছে যে,  কমপক্ষে দুটি গাড়ি করে হামলাকারীরা মন্ত্রণালয় ভবনে প্রবেশ করে। এর মধ্যে একটি গাড়ির চালক ছিল আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী যে ভবনের প্রধান ফটকে আঘাত হানে। মুহূর্তের মধ্যে আর্মি পোশাকধারী বাকি সদস্যরা ভেতরে প্রবেশ করে। মন্ত্রণালয়ের দেয়া বিবৃতিতে আত্মঘাতী বোমাহামলাকারীর কথা উল্লেখ করা হয়নি।

তবে গত দু’বছর ধরে আল-কায়েদা সরকারি দপ্তরগুলোতে জঙ্গি হামলা চালিয়ে আসছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, বিস্ফোরণে পুরো এলাকা কেঁপে ওঠে। উল্লেখ্য, ইয়েমেনের সেন্ট্রাল ব্যাংকও একই এলাকায় অবস্থিত। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্র আরও জানায়, অফিস শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পর হামলাটি সংঘটিত হয়। আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী মন্ত্রণালয় ফটক দিয়ে গাড়ি চালিয়ে ভেতরে প্রবেশ করে। পার্শ্ববর্তী ভবনের এক কর্মী রয়টার্সকে বলেন, প্রচণ্ড বিস্ফোরণে পুরো এলাকা কেঁপে ওঠে এবং ভবন থেকে কালো ধোঁয়া উদগীরণ হতে থাকে। এরপরই অ্যামবুলেন্সের সাইরেন আর মুহুর্মুহু গুলির শব্দ শোনা যায়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে বন্দুকধারীদের গুলি বিনিময় হয়। বন্দুকধারীরা ইয়েমেন সেনাবাহিনীর পোশাক পরে ভবনে প্রবেশ করে।

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close