Featuredসিলেট থেকে

হরতাল অবরোধে সিলেটে ব্যাপক গাড়ি ভাংচুর: পুলিশের সাথে সংঘর্ষের সময় আটক ২৬ জন

শীর্ষবিন্দু নিউজ: মানবতার দায়ে কারাগারে আটক কাদের মোল্লার মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে জামায়াতে ইসলামীর ডাকা হরতালের সকালে সিলেটে হরতাল সমর্থকরা ব্যাপক পিকেটিং যানবাহন ভাংচুর ও হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। সোমবার সকালে সিলেট নগরীতে পুলিশের সঙ্গে জামায়াত-শিবির কর্মীদের কয়েক দফা ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাও ঘটে। পুলিশ শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে ১৭ শিবিরকর্মীসহ ২৬ জনকে আটক করেছে বলে জানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়।

এদিকে, বিএনপি-জামায়াত জোটের অবরোধের মধ্যেই সোমবার সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে জামায়াতে ইসলামী। অবরোধ ও হরতালে সিলেট থেকে দূরপাল্লার কোনো বাস ছেড়ে যায়নি। তবে শহরে রিকশা, অটোরিকশাসহ হালকা যানবাহন চলাচল করছে। ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে বলে সিলেট রেলওয়ে স্টেশনের ব্যবস্থাপক আবুল কালাম আজাদ জানান। নাশকতা এড়াতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সতর্ক অবস্থানে রাখা হয়েছে। র‌্যাব ও পুলিশের পাশাপাশি নগরীতে বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। জামায়াতের হরতাল ছাড়াও সিলেট বিভাগে ছাত্রদল হরতাল পালন করছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল ৯টার দিকে সার্কিট হাউস এলাকায় কয়েকটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটায় শিবির কর্মীরা। শাহী ঈদগাহে ঝটিকা মিছিল থেকে হাতবোমা ফাটানো হয়। এ সময় পুলিশ ও জামায়াত-শিবিরের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। শিবির কর্মীরা ইটপাটকেল ছুড়লে শটগানের গুলি ও কাঁদুনে গ্যাসের শেল ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয় পুলিশ।

এছাড়া কুমারপাড়া ও মেডিকেল এলাকায়ও ঝটিকা মিছিল করে কয়েকটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটায় জামায়াত-শিবির কর্মীরা। এ সময় অটোরিকশাসহ ৪/৫টি যানবাহনে ভাংচুর চালায় তারা। এর আগে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে নগরীর পাঠানটুলা এলাকায় ঝটিকা মিছিল করে জামায়াত-শিবির কর্মীরা। এসময় সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করে তারা।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close