অর্থনীতি

বিবিএস তথ্য মতে: রাজনৈতিক অস্থিরতায় ফের মূল্যস্ফীতি বেড়েছে

শীর্ষবিন্দু নিউজ: চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতা, হরতাল, অবরোধ ও সহিংসতায় ফের মূল্যস্ফীতির ঘটনা ঘটেছে। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী, পয়েন্ট টু পয়েন্ট ভিত্তিতে গড় মূল্যস্ফীতি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭ দশমিক ৩৫ ভাগ, যা গত বছরে একই সময়ে ছিল ৬ দশমিক ৫৫ ভাগ। একই সঙ্গে খাদ্যেও মূল্যস্ফীতি বেড়েছে অস্বাভাবিক হারে।

মঙ্গলবার সকালে আগারগাঁওয়ের বিবিএস অডিটোরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়। সংস্থাটির মহাপরিচালক গোলাম মোস্তফা কামাল মূল্যস্ফীতি সংক্রান্ত বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। এ সময় তিনি বলেন, রাজনৈতিক অস্থিরতায় সব কিছুর ওপর প্রভাব পড়ে। সমাজের ও অর্থনীতির ওপর বিরূপ প্রভাব পড়ে। সে কারণে খাদ্য ও সাধারণ মূল্যসূচক বেড়েছে।

বিবিএস’র দেওয়া তথ্যে দেখা গেছে, পয়েন্ট-টু-পয়েন্টের ভিত্তিতে নভেম্বর মাসে সাধারণ মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৭ দশমিক ১৫ ভাগ। ডিসেম্বরে তা বেড়েছে ৭ দশমিক ৩৫ ভাগ। খাদ্য পণ্যে অস্বাভাবিক হারে মূল্যস্ফীতি ঘটেছে। পয়েন্ট-টু-পয়েন্টের ভিত্তিতে নভেম্বরে খাদ্যে মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৮ দশমিক ৫৫ ভাগ এবং ডিসেম্বরে তা বেড়ে ৯ ভাগে দাঁড়িয়েছে। বিবিএস জানায়, অস্থিতিশীল রাজনৈতিক অবস্থা ও পরিবহন খরচ দেশের নানা জায়গায় খাদ্যপণ্যে মূল্যস্ফীতির ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে।

এদিকে, মূল্যস্ফীতির হ্রাস-পর্যালোচনা করলে দেখা যায় চাল, ডাল, আটা, মাছ-মাংস, ফল, মসলা, ভোজ্যতেল, দুধ, অন্যান্য বিবিধ খাদ্য সামগ্রীর দাম বৃদ্ধির কারণে মাসওয়ারী মূল্যস্ফীতি হয়েছে। খাদ্যপণ্যে মাসওয়ারী মূল্যস্ফীতি ০.৪৫ ভাগ। মূল্যস্ফীতির হার পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, পরিধেয় বস্ত্রাদি, বাড়িভাড়া, আসবাবপত্র ও গৃহস্থালি, চিকিৎসা সেবা, পরিবহন, শিক্ষোপকরণ এবং বিবিধ দ্রব্য ও সেবা খাতের দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধির কারণে মাসিক ভিত্তিতে খাদ্য বহির্ভূত উপ-খাতে মূল্যস্ফীতি হয়েছে শতকরা ০ দশমিক ২০ ভাগ, যা নভেম্বরে মাসে ছিল ০ দশমিক ২৬ ভাগ। পয়েন্ট-টু-পয়েন্টের ভিত্তিতে খাদ্য বহির্ভূত উপখাতে মূল্যস্ফীতি কমেছে। নভেম্বরে ছিল যা ৫ দশমিক ০৮ ভাগ। ডিসেম্বরে তা ৪ দশমিক ৮৮ ভাগে নেমে আসে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close