Featuredবানিজ্য

বিদ্যুৎ বিল বকেয়া ৩ হাজার ৭৬১ কোটি টাকা

শীর্ষবিন্দু নিউজ: অবৈধ সংযোগ ও বিদ্যুৎ বিল বকেয়ার কারণে ডিসেম্বরে ৩২ হাজার সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। বুধবার বিদ্যুৎ বিভাগের সমন্বয় সভায় শেষে এ তথ্য জানিয়েছে সচিব মনোয়ার ইসলাম।

গ্রাহকের কাছে পাঁচটি বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানির বিদ্যুৎ বিল বকেয়া পড়েছে ৩ হাজার ৭৬১ কোটি ৮২ লাখ টাকা। সংযোগ বিচ্ছিন্ন অভিযানের প্রথম তালিকায় রয়েছে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড। এই বিদ্যুৎ বিতরণ সংস্থাটি ডিসেম্বর মাসে ১৬ হাজার ৮৬৭টি সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে। এর পরেই রয়েছেন বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ৮ হাজার ৯শ’ টি।

যথাক্রমে ঢাকা ইলেক্ট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি (ডেসকো) ২ হাজার ৮৯৫টি, ঢাকা পাওয়ার ডিস্টিবিউশন কোম্পানি (ডিপিডিসি) ১ হাজার ৬৪০টি,  এবং ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্টিবিউশন কোম্পানি (ওজোপাডিকো) ৬১৩ টি সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে। বিচ্ছিন্নকৃত সংযোগের বিপরীতে বকেয়ার পরিমাণ ছিল ২২ কোটি ৩ লাখ ২৭ হাজার ৭৮০ টাকা।

এদিকে বিতরণ কোম্পানিগুলোকে বারবার তাগাদা দেওয়া সত্ত্বেও বকেয়া আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জণ করতে পারছে না। গত বছরে কোনো বিতরণ সংস্থাই লক্ষ্যমাত্রা অর্জণ করতে পারেনি। সর্বোচ বকেয়া রয়েছে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের। সংস্থাটির গত অক্টোবর মাস পর্যন্ত বকেয়ার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ২৫১ কোটি ৬২ লাখ টাকা। এর পরেই রয়েছে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে। সংস্থাটির অক্টোবর মাস পর্যন্ত বকেয়ার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৬৩ কোটি ৯২ লাখ টাকায়।

অন্যদিকে ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির (ডিপিডিসি) বয়েকা বিদ্যুৎ বিল পড়ে রয়েছে ৭৯২ কোটি ৭৭ লাখ টাকা। ঢাকা ইলেক্ট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানির (ডেসকো) বকেয়া রয়েছে ৪০৬ কোটি ৩২ লাখ টাকা। আর ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির (ওজোপাডিকো) বকেয়ার পারিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৪৭ কোটি ১৯ লাখ টাকা। অবৈধ বিদ্যুৎ ব্যবহার রোধ এবং বকেয়া বিল আদায়ের ব্যাপারে বিদ্যুৎ বিভাগ থেকে কঠোর দিক নির্দেশনা দেওয়া হয়। প্রয়োজন সংযোগ বিচ্ছিন্ন অভিযান আরও জোরদার করার নির্দেশনা দিয়েছেন বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close