আরববিশ্ব জুড়ে

মিশরীয় কূটনীতিক লিবিয়ায় অপহৃত

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিতে মিশরীয় এক কূটনীতিককে অপহরণ করেছে অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা। শুক্রবার এ খবর জানিয়েছেন লিবীয়ান কর্মকর্তারা। অপহৃত ওই কূটনীতিক ত্রিপোলির মিশরীয় দূতবাসের প্রশাসনিক অ্যাটাচে বলে জানিয়েছে লিবীয় ও মিশরীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তাৎক্ষণিকভাবে ওই কূটনীতিকের সম্পর্কে আর বেশি কিছু জানা যায়নি।

মিশরে তাদের নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, শক্তিশালী একটি লিবীয় বেসামরিক বাহিনী এ খবর জানানোর কয়েক ঘন্টার মধ্যেই অপহরণের এ ঘটনা ঘটে। মিশরে শাবান হাদিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। চিকিৎসার জন্য পরিবারসহ তিনি সেখানে গিয়েছিলেন। শাবানকে গ্রেপ্তারকালে তার থাকার জায়গাটি মিশরীয় নিরাপত্তা বাহিনী তছনছ করে বলে এ সময় অভিযোগ করেন ঘারিয়ানি। তাদের দল মিশরীয় কূটনীতিককে অপহরণ করেনি বলে দাবী করেন তিনি। শাবানকে মুক্তি দিতে কায়রোর প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

মিশরকে সতর্ক করে তিনি বলেন, পরবর্তী কয়েক ঘন্টার মধ্যেই তাকে মুক্তি দেয়ার জন্য মিশরীয় কর্তৃপক্ষকে সতর্ক করে দিচ্ছি আমরা। তা না হলে এ বিষয়ে আমাদের পক্ষ থেকে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখানো হবে। তবে শাবানের গ্রেপ্তারের বিষয়ে মিশরীয় কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানায়নি।

লড়াইয়ের মাধ্যমে লিবিয়ার ক্ষমতা থেকে সাবেক একনায়ক মুয়াম্মাম গাদ্দাফিকে সরাতে ভূমিকা রাখা বড় ধরনের বেসামরিক বাহিনীগুলোর মধ্যে অন্যতম অপারেশন রুম। কিন্তু গাদ্দাফি ক্ষমতাচ্যুত ও নিহত হওয়ার পর বিদ্রোহীদের নতুন অন্তর্বর্তী সরকার গঠন করা হলেও অস্ত্র ত্যাগ করতে অস্বীকার করে দলটি। লিবিয়ার প্রধানমন্ত্রী আলি জেইদানকে অল্প সময়ের জন্য অপহরণ করে ধরে রাখার জন্য এই দলটিকেই দায়ী করেছে দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা।

মিশরীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেছেন, অপহৃত কূটনীতিককে মুক্ত করতে আলোচনা চলছে। লিবিয়ার শক্তিশালী বেসামরিক বাহিনী অপারেশন রুম অব লিবিয়াস রেভ্যুলুশনারি’ জানিয়েছে, তাদের নেতা শাবান হাদিয়াকে মিশরে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close