লন্ডন থেকে

কম মজুরিতে অবৈধভাবে কাজ করানো হচ্ছে ইইউ শ্রমিকদের

সুমন আহমেদ: ইউরোপ থেকে আসা মাইগ্রেন্ট শ্রমিকদের কম মজুরিতে কাজ করার প্রমাণ পাওয়া গেছে। দৈনিক ৪০ পাউন্ড মজুরি দিয়ে এই কাজ করানো হচ্ছে অবৈধভাবে যা বিট্রেনের নূন্যতম শ্রমিক মজুরির আওতায় পড়ে না। বিবিসির এক প্রকাশিত সংবাদে উঠে এসেছে এই তথ্য।

কাজ পাবার আশায় নর্থ লন্ডনের সেভেন সিস্টার রোডে সমবেত হোন ইউরোপ থেকে আসা মাইগ্রেন্ট শ্রমিকরা যারা উন্নত জীবন আর কাজের আশায় পাড়ি দিয়েছেন ব্রিটেনে। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে জানা যায় দিনের পর দিন এভাবে কাজের খোজে এই স্থানের লোকজনের সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

কাজের লোকে দাড়িয়ে থাকা লোকজনদের সম্পর্কে জানতে বিবিসি একটি আড়ি পাতে। দুই নিদ্রিষ্ট লোককে তৈরি করে পাঠানো হয়ে ঐ স্থানে যাদের সাথে সংযুক্ত করে দেয়া গোপন ক্যামেরাও। সেখানে গোপনে ধারণকৃত ক্যামেরায় দেখা যায়, তাদেরকে কাউকে দিয়ে ম্যাট্রেস বহন এবং কাউকে দিয়ে বিল্ডিং তৈরিতে পাইপ মেরামতের কাজ করানো হচ্ছে। বর্তমানে ব্রিটেনে সর্বন্ম্নি বেতন ঘন্টায় ৬.৩১ পেন্স। কিন্তু এসব শ্রমিকদের অমানবিকভাবে দেয়া হচ্ছে ৮ ঘন্টায় ৩৭.৫০পেন্স সারাদিন শেষে যেখানে ঘন্টায় দাড়ায় ৪.৬৮ পেন্স।

আবার অন্য আরেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, সারাদিন বিল্ডারি কাজ করে ঘন্টায় দেয়া হয়েছে ৭.১৪ পেন্স কিন্তু কোন ট্যাক্স প্রদান করা হয়নি। যেখানে শ্রমিক মজুরি শুধু কম দেয়া নয় ট্যাক্স ফাকি ও হেলথ এন্ড সেইফটি ইস্যূও কারণ হয়ে দাড়িয়েছে।

বিজনেস সেক্রেটারী ভিনস ক্যাবল বলেন, আমি জানি ঠিক ঘটছে। তবে এর যথাযত তদন্ত করবেন। এবং যথা শিঘ্রই সম্ভব ব্যবস্থা নেবেন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close