আরববিশ্ব জুড়ে

ইরাকের পরিবহণ মন্ত্রণালয়ে হামলায় নিহত ২৪: আহত অর্ধশত

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: ইরাকের রাজধানী বাগদাদের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত পরিবহণ মন্ত্রণালয় ভবনে গতকাল ৬ আত্মঘাতী হামলাকারী নিজেদের গায়ে বাঁধা বোমার বিস্ফোরণ ঘটালে কমপক্ষে ২৪ জন নিহত হয়। আত্মঘাতী হামলায় আহত হয়েছেন আরও ৫০ জন।

পক্ষান্তরে, দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে ওই ঘটনায় আত্মঘাতী ৬ হামলাকারীসহ মোট ৮ জন নিহত হয়েছে। এদিকে আহতদের স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ফলে, নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। প্রাথমিকভাবে হামলায় হতাহতদের পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। এ পর্যন্ত কোন জঙ্গি সংগঠন এ হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে, শীর্ষ জঙ্গি সংগঠন আল-কায়েদা এবং এর সঙ্গে সম্পৃক্ত দলগুলো এ ধরনের হামলা পরিচালনা করে থাকে।

বাগদাদের নিরাপত্তা বাহিনীর একটি সূত্রে জানা গেছে, আত্মঘাতী ৬ হামলাকারী প্রথমে বেশ কয়েকজনকে জিম্মি হিসেবে ভবনের ভেতরেই আটকে রাখে ও এক পর্যায়ে ৯ জিম্মিকে হত্যা করে। তাদের অধিকাংশই ‘ফ্যাসিলিটিস প্রোটেকশন সার্ভিস’-এর সদস্য বলে জানা গেছে। ৪ জঙ্গি সদস্য নিজেদের গায়ে বাঁধা বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। একজনকে বিস্ফোরণ ঘটানোর আগেই নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা গুলি করে হত্যা করে। ষষ্ঠ জঙ্গি সদস্য গুলিতে আহত হওয়ার অল্প সময়ের মধ্যে মারা যায়।

এদিকে নিরাপত্তা কর্মকর্তারা হামলার জন্য কট্টরপন্থী সুন্নি মুসলমানদের সংগঠন ‘ইসলামিক স্টেট অব ইরাক অ্যান্ড দ্য লিভ্যান্ট’কে দায়ী করেছে। এ সংগঠনটি ইরাকে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির মাধ্যমে শিয়া নেতৃত্বাধীন সরকারের পতন ঘটানোর লক্ষ্যে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ভবনে হামলা চালিয়ে থাকে। নিরাপত্তা কর্মকর্তারা  বলছেন, আসন্ন দিনগুলোতে এ ধরনের আরও হামলা চালানো হতে পারে বাগদাদ ও এর আশপাশে। এদিকে এ শিয়া-সুন্নি বিরোধের ফায়দা লুটছে আল-কায়েদাসহ অন্যান্য জঙ্গি সংগঠনগুলো।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close