বানিজ্য

জিএসপি সুবিধায় ভারত: বাংলাদেশের জন্য হুমকি

চলতি বছরের যে কোনো সময় যুক্তরাষ্ট্রে ভারতীয় পণ্যের অগ্রাধিকারমূলক বাজার সুবিধা (জিএসপি) পাওয়া বাংলাদেশের জন্য হুমকি বলে মনে করেন বিজিএমইএ’র (তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতি) সভাপতি মো. আতিকুল ইসলাম। বিশ্বব্যাপী শ্রমিকদের মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠন ইমপেক্ট ও দেশের তৈরি পোশাক মালিকদের সমিতি বিজিএমইএ’র মধ্যে এই চুক্তি সই হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে বিজিএমইএ মিলনায়তনে এক চুক্তিস্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

বিজিএমইএ সভাপতি আতিকুল ইসলাম বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে আমাদের জিএসপি সুবিধা স্থগিত আছে। কিন্তু কিছুদিন আগে পাকিস্তানকে সে সুবিধা দেওয়া হয়েছে। এতে আমাদের খুব বড় ধরনের ক্ষতি হয়েছে। এরপর ভারত জিএসপি সুবিধা পেয়ে যাচ্ছে, যা বাংলাদেশের ব্যবসা বাণিজ্যের জন্য হুমকি স্বরূপ। তিনি বলেন, বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পকে রক্ষা করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। অন্যথায় এ শিল্প লন্ডভন্ড হয়ে যাবে এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। ট্রেড ইউনিয়ন নিয়ে অনেক কথা হয়।

রানা প্লাজা ধসের সময় ট্রেড ইউনিয়ন ছিল ৩৫টি, যা এখন বেড়ে ৯৬টিতে দাঁড়িয়েছে। আরও ৬৬টি ইউনিয়ন পাইপ লাইনে আছে। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রাইমার্ক, টেস্কো,ওয়ালমার্টের মতো বড় ক্রেতা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এই চুক্তির মাধ্যমে চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে ঢাকা ও চট্টগ্রামের ২শ’ কারখানার নিরাপত্তা উন্নয়ন ও উৎপাদন ক্ষমতা বৃদ্ধিতে বিজিএমইএ এর সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করবে ইমপেক্ট।

ইতোমধ্যে ৪৫টি কারখানায় এসব সুবিধা দিচ্ছে ইমপেক্ট। এ কর্মসূচির আওতায় বাংলাদেশের পোশাক শিল্পে ৬৫ হাজার ডলার সহায়তা দেবে  ইমপেক্ট। অনুষ্ঠানে ইমপেক্ট এর বাংলাদেশের চেয়ারম্যান রোজি হার্ট বলেন, এই চুক্তি করতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। বিজিএমইএ’র সঙ্গে এক হয়ে কারখানায় উৎপাদন বৃদ্ধিসহ অন্যান্য সহায়তা করে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে আমরা ভূমিকা রাখতে চাই। আশা করছি আমাদের উদ্যোগ সফল হবে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close