ইউরোপ জুড়ে

আড়ালে পুতিনের গোপণ বিয়ে

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: বিশ্বব্যাপি আালোচিত ঘটনা লুদমিলার সঙ্গে বিচ্ছেদের বছর না ঘুরতেই নতুন সংসার বেঁধেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। চুপি চুপি প্রেমে ক্ষান্ত দিয়ে দেশরই স্বর্ণপদক জয়ী সাবেক জিমন্যাস্ট আলিনা কাবায়েভাকে বিয়ে করেছেন তিনি।

তবে বিয়ের বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা দেননি পুতিন বা কাবায়েভা কেউই। এক অনুষ্ঠানে টেলিভিশন ক্যামেরায় বিয়ের আংটি দেখা গেছে ‍কাবায়েভার আঙ্গুলে। রুশ রীতি মেনে কাবায়েভার ডান হাতের আঙ্গুলের আংটিটি তার বিয়েরই সাক্ষ্য বহন করে। গত সপ্তাহে মিশরের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ও সেনাপ্রধান ফিল্ড মার্শাল আব্দুল ফাত্তাহ আল-সিসির সঙ্গে মস্কোয় এক বৈঠকে রুশ প্রেসিডেন্টের হাতেও আংটি দেখা যায়।

বিশ্বের শক্তিধর ব্যক্তিদের মধ্যে অন্যতম পুতিন ২০০০ সালে প্রথমবারের মতো প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। টানা দু’ মেয়াদ ক্ষমতায় থাকার পর নিজের অনুগত দিমিত্রি মেদভেদের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন তিনি।
টানা তৃতীয়বার ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হওয়ার সাংবিধানিক জটিলতায় ২০০৮ সালে নির্বাচনে লড়তে পারেননি তিনি। ২০১২ সালে নির্বাচনে অংশ নিয়ে তৃতীয় মেয়াদের মতো প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন তিনি। ২০১৮ সালের নির্বাচনে আবারও অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন সাবেক কেজিবি সদস্য পুতিন।

ক্রেমলিনের একটি সংবাদ সাইটে এ ছবি প্রকাশ পায়। কিন্তু পরে ‍ছবিটি সাইট থেকে সরিয়ে ফেলে কর্তৃপক্ষ। কর্তৃপক্ষ বলে, ছবিটি গত বছরের জুনের, লুদমিলার সঙ্গে ছাড়াছাড়ির আগের। ভ্লাদিমির পুতিনের প্রেমের গুজব নতুন নয়, লুদমিলার সঙ্গে ছাড়াছাড়ির জন্য আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো  কাবায়েভার সঙ্গে সম্পর্ককে দায়ী করেছিলেন।  সেপ্টেম্বরে ভালদেইয়ে কাবায়েভাবেকে বিয়ের বিষয়টি দৃঢ় কণ্ঠে নাকচ করে দিয়েছিলেন পুতিন। সেসময় পুতিনের রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যালেক্সাই নাভালনি টুইট করেছিলেন, আমি জানতে পেয়েছি, আইভের মনাস্ট্রেরিতে পুতিন ও কাবায়েবা আজকে বিয়ে করছেন। পুতিনের সহকর্মীরাও ৩০ বছর বয়সী এ সুন্দরী জিমন্যাস্টের সঙ্গে বিয়ের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের উজবেকিস্তানের তাসখন্দে জন্মগ্রহণকারী কাবায়েভা ২০০৪ সালে অ্যাথেন্স অলিম্পিকে স্বর্ণপদক জয় করেন। এর চার বছর আগে সিডনিতে ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ পদক জিতেছিলেন তিনি। ক্রীড়াজীবনে ৩৯টির মতো পদকধারী কাবায়েভা ২০০৭ সালে অবসর নিয়ে রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। পুতিনের ইউনাইটেড রাশিয়ায় যোগ দিয়ে পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ দুমার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি। তখন থেকেই পুতিন-কাবায়েভার সম্পর্ক তৈরি হয়।

২০০৮ সালে মস্কোভস্কি করেসপন্ডেন্ট এক প্রতিবেদনে প্রকাশ করে, ৩০ বছরের দাম্পত্য জীবনের ইতি টানছেন ‍পুতিন। কাবায়েবার জন্য লুদমিলাকে ছাড়ছেন সাবেক কেজিবি সদস্য। এরপর মস্কোভস্কি করেসপন্ডেন্ট বন্ধ ঘোষণা করেন তার মালিক আলেক্সাজান্দ্রার লেভদেভেদ। ব্রিটেনের দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট ও লন্ডন ইভিনিং স্ট্যান্ডার্ড এর মালিক লেভদেভদও একজন সাবেক কেজিবি সদস্য। গুজবকে সত্য বানাতেই বুঝি ২০১৩ সালের জুনে দুই সন্তানের মা লুদমিলার সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ করেন পুতিন।

বিশ্বের শক্তিধর ব্যক্তিদের মধ্যে অন্যতম পুতিন ২০০০ সালে প্রথমবারের মতো প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। টানা দু’ মেয়াদ ক্ষমতায় থাকার পর নিজের অনুগত দিমিত্রি মেদভেদের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন তিনি।
টানা তৃতীয়বার ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হওয়ার সাংবিধানিক জটিলতায় ২০০৮ সালে নির্বাচনে লড়তে পারেননি তিনি। ২০১২ সালে নির্বাচনে অংশ নিয়ে তৃতীয় মেয়াদের মতো প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন তিনি। ২০১৮ সালের নির্বাচনে আবারও অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন সাবেক কেজিবি সদস্য পুতিন।

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close