স্থানীয়

উপজেলা নির্বাচন: সুনামগঞ্জের একটি কেন্দ্রে আ. লীগ-জামায়াত সংঘর্ষ

শীর্ষবিন্দু নিউজ: সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলায় আজ বুধবার দুপুরে আওয়ামী লীগ ও জামায়াতের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে দুই সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও আনসার সদস্যসহ সাতজন আহত হয়েছেন। উপজেলা নির্বাচনে বীর সিং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ চলাকালে এ ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষের কারণে আধঘণ্টা ভোট নেওয়া বন্ধ ছিল। দোয়ারাবাজার উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ছয়জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৩ জন ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এই উপজেলার মোট ভোটারের সংখ্যা এক লাখ ২৯ হাজার ৭০৫।

সংঘর্ষে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান ও শেখ সাদীসহ তিনজন আনসার সদস্য আহত হন। প্রিসাইডিং কর্মকর্তা সাদিকুর রহমান জানান, দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে আবার ভোট নেওয়া শুরু হয়েছে। বর্তমানে কেন্দ্রে র্যাব ও সেনাবাহিনীর সদস্যরা রয়েছেন। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, দুপুর ১২টার দিকে বীর সিং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের বাইরে আওয়ামী লীগ ও জামায়াতের দুই সমর্থকের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। এর জের ধরে দুই পক্ষের কর্মী-সমর্থকেরা সংঘর্ষে লিপ্ত হন। একপর্যায়ে আওয়ামী লীগের সমর্থকেরা কেন্দ্রের ভেতরে প্রবেশ করে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা, এজেন্ট ও আনসার সদস্যদের মারধর করেন। এ সময় তাঁরা ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালান।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close