এশিয়া জুড়ে

রাহুলকে চুমু দেয়ায় স্ত্রীকে হত্যা করে স্বামী

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক:

ভারতে ক্ষমতাসীন কংগ্রেসের ভাইস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধীকে চুমু দেয়ার কারণে বন্টি চুটিয়া নামে এক নারীকে তার স্বামী গায়ে আগুন ধরিয়ে হত্যা করেছে। এরপর তার স্বামী সোমেশ্বর চুটিয়া আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। গতকাল ভারতীয় মিডিয়ায় এ খবর দিলেও পুলিশ বলেছে, ঘটনার দিন রাহুল গান্ধীকে চুমু দেননি বন্টি চুটিয়া। তিনি ছিলেন ঘটনাস্থল থেকে দূরে। গতকাল এ খবর দিয়েছে অনলাইন জি-নিউজ।

এতে বলা হয়, কয়েকদিন আগে আসাম সফরে গিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী। সেখানে তিনি নারীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে কয়েকজন নারী তার মাথায় হাত বুলিয়ে দেন। মাথায় চুমু দেন। মুখে চুমু দেন। প্রাথমিকভাবে খবরে বলা হয়, এর মধ্যে ছিলেন বন্টি চুটিয়া। এ বিষয়টি ভালভাবে নিতে পারেননি তার স্বামী সোমেশ্বর চুটিয়া। তাই তিনি স্ত্রীর গায়ে আগুন দিয়েছেন। তবে বন্টি চুটিয়ার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করলেও পুলিশ বলছে, রাহুল গান্ধীকে চুমু দেননি বন্টি।

এসপি আমানজিত কাউর বলেছেন, যে নারী আগুনে মারা গেছেন তিনি কংগ্রেসের সদস্য। রাহুলের সঙ্গে ওই সাক্ষাতের সময় তিনি সেখানে উপস্থিত ছিলেন না। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে। আমানজিত কাউর বলেছেন, আমরা এ বিষয়ে কথা বলেছি সবার সঙ্গে। তারপর জানতে পেরেছি তিনি বুধবারের ওই অনুষ্ঠানে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু মূল অনুষ্ঠানস্থল থেকে তিনি ছিলেন দূরে। আমরা স্থানীয় প্রতিবেশীদের কাছ থেকে জানতে পেরেছি যে, বন্টি চুটিয়া ও সোমেশ্বর চুটিয়ার মধ্যে দীর্ঘদিন সম্পর্কে টানাপড়েন চলছিল। এজন্যই ওই হত্যাকাণ্ড ঘটে থাকতে পারে।

ওদিকে সাব-ডিভিশনাল পুলিশ কর্মকর্তা কুলেন্দ্র দেকা বলেছেন, রাহুল গান্ধীর ওই অনুষ্ঠানের ভিডিও চেক করেছে পুলিশ। চুমু দেয়ার ওই ঘটনার সময় তাতে কোথাও বন্টিকে দেখা যায়নি। এ বিষয়ে কোন মামলা হয়নি। এর আগে পাওয়া এক রিপোর্টে বলা হয়, রাহুল গান্ধীকে চুমু দেয়ার কারণে বন্টিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করেছে তার স্বামী। চুমু দেয়া নিয়ে প্রথমে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। রাহুল গান্ধী দেশের বিভিন্ন অংশ সফর করছেন। এর মাধ্যমে দলকে চাঙ্গা করার চেষ্টা করছেন তিনি। এরই অংশ হিসেবে

গত বুধবার তিনি আসামের জোড়হাট সফর করেন। সেখানে সমাগম হয় বিপুল সংখ্যক নারীর। তাদের মধ্য থেকে দু’নারী এগিয়ে গিয়ে রাহুলের কাঁধে ও কপালে চুমু দেন। এ সময় কংগ্রেসের তরুণ এই নেতা কিছুটা বিব্রত বোধ করেন। তা সত্ত্বেও তিনি সেখানে সব নারী সদস্যের সঙ্গে হাত মেলান।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close