Featuredমহিলা অঙ্গন

এসব পুরুষ থেকে সাবধান

শী অনলাইন ডেস্ক |

সংগৃহীত ছবি

সংগৃহীত ছবিপ্রথম দর্শনে কোনো পুরুষকে দেখে কোনো নারীর মনে হতে পারে, এই বুঝি তাঁর স্বপ্নের রাজপুত্রের দেখা মিলল! তবে সঙ্গী নির্ধারণ যদি সঠিক না হয়, তাহলে সেই রাজপুত্রই কিছুদিনের মধ্যে হয়ে উঠতে পারেন সবচেয়ে অপ্রিয় মানুষ। সঙ্গী বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে কোন ধরনের পুরুষদের নারীর এড়িয়ে চলা উচিত—আজ টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এ ব্যাপারে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ তুলে ধরা হয়েছে:

নিজের পথেই গ্যাঁট থাকে যে
যেসব পুরুষ সম্পর্কটাকে এগিয়ে নিতে নতুন কোনো কিছু গ্রহণ করে নিতে রাজি নন, তাঁদের সঙ্গে সম্পর্কটা শেষমেশ একপেশে ও একঘেয়ে হয়ে দাঁড়ায়। আপনি যদি মনে করেন, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আপনার সঙ্গীর মধ্যে পরিবর্তন আসবে, আপনার পছন্দ-অপছন্দকে খোলা মনে মেনে নিতে শুরু করবেন, তাহলে ভুল করবেন। এ ধরনের লোকেরা বয়সের সঙ্গে সঙ্গে আরও বেশি অনমনীয় হয়ে ওঠেন।

নির্ভরশীল পুরুষ
যেসব পুরুষ আশা করেন খাওয়ার পর তাঁর থালা-বাটি আপনি মেজে দেবেন, তাঁর ছড়ানো পোশাক তুলে রাখবেন, এমনভাবে যত্ন-আত্তি করবেন যেন তিনি একটি শিশু—এঁদের থেকে সাবধান। কেননা এঁরা সব সময় এমন আচরণ করতে থাকবেন যেন আপনি তাঁর মা। এ যন্ত্রণা আপনাকে সারা জীবনই বহন করতে হবে।

সব বিষয়ে শর্ত জুড়ে দেয়
কিছু পুরুষ আছেন যাঁরা পরিচয়ের শুরু থেকে নানা ধরনের শর্ত জুড়ে দেন। এ ধরনের মানুষের সঙ্গে যদি দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্কে আবদ্ধ হন, তবে আপনার জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠবে। এটি তারই পূর্বলক্ষণ।

সব সময় খেলা দেখায় মগ্ন
অনেক পুরুষ আছেন, যাঁরা খেলা দেখতে ভালোবাসেন। তবে অনেকে আছেন, যাঁদের কাছে পরিবার বা দায়িত্বের চেয়ে খেলা দেখার নেশাটাই মুখ্য। খেলার প্রতি যাঁদের এ ধরনের শিশুতোষ আসক্তি রয়েছে, তাঁদের এড়িয়ে চলাই উত্তম।

আজকের রাতের খাবারে কী রয়েছে
যে পুরুষ আশা করেন প্রতি রাতে আপনি তাঁকে রান্না করে খাওয়াবেন, তেমন পুরুষকে এড়িয়ে চলাই ভলো। কেননা আপনি এ ধরনের লোকের গৃহপরিচারিকায় পরিণত হতে পারেন।

মুখ ফেরানো পুরুষ
কিছু পুরুষ আছেন, প্রথমবার যৌন সম্পর্ক করার পর এড়িয়ে চলতে থাকেন। এসব পুরুষকে জীবনের সঙ্গে জড়ালে পরিণতিতে পস্তাতে হবে।

খাবার বিল যে চাপিয়ে দেয়
সম্পর্কের গোড়ার দিকে দুজনে হয়তো কোথাও বাইরে খেতে গেলেন, খাওয়া শেষে দেখা গেল সঙ্গীটি খাবারের বিল পরিশোধে আপনার সহায়তা চাচ্ছেন। এমনটা যদি ঘটে, তবে এখনই সতর্ক হয়ে যান। একবার বিল দেওয়া শুরু করলে, তিনি ধরে নেবেন আপনি বরাবরই এভাবে দিয়ে যাবেন।

অতি খবরদারি
যে পুরুষ সারাক্ষণই তাঁর সঙ্গিনীকে নজরদারিতে রাখেন এবং কার কার সঙ্গে মেলামেশা করলেন, এর অনুসন্ধানে ব্যস্ত—এমন পুরুষের কাছ থেকে যত দূরে থাকবেন তত মঙ্গল।

কী যে করি
এসব পুরুষ এমনই দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভোগেন, জীবনে কী যে চান—তা নিজেই ঠিক করতে পারেন না। একদিন হয়তো আপনার সঙ্গে সম্পর্ক গড়ার কথা বললেন। পরদিন হয়তো বাচ্চা-কাচ্চা নেওয়ার ব্যাপারে কিছু বললেন। দুই মাস পর দেখা গেল তাঁর দুটি সিদ্ধান্তই নড়বড়ে। এ ধরনের পুরুষ যেকোনো সময় তাঁর জীবন থেকে আপনাকে ছুড়ে ফেলতে পারেন, কাজেই সাবধান!

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close