এশিয়া জুড়ে

পদত্যাগ করলেও সরকারি বাংলো ছাড়েননি কেজরিওয়াল

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: পদত্যাগ করার পর সরকারি বাংলোতে অবস্থান করার নির্দিষ্ট সময় পার হয়ে গেলেও তা ছাড়েননি দিল্লির সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও আম আদমি পার্টির প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল। সরকারি কর্মচারীদের সততা ও নিয়মানুবর্তিতা মেনে চলার জন্য আন্দোলনকারী কেজরিওয়ালের এ নিয়ম লঙ্ঘণের কথা বৃহস্পতিবার জানিয়েছে এনডিটিভি।

নিয়মানুযায়ী মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করার পর দিল্লির তিলক লেনের সি-১১/২৩ বাংলোটিতে বিনাভাড়ায় পরবর্তী ১৫ দিন অবস্থান করার সুযোগ রয়েছে। কিন্তু ১৪ ফেব্রুয়ারি পদত্যাগ করার পর ১ মার্চ সেই ১৫ দিন পার হয়ে গেলও বাসা ছাড়েননি তিনি। তবে তারা যদি আরো অতিরিক্ত সময় অবস্থান করতে চান (তিন থেকে সর্বোচ্চ ছয়মাস) তবে বাজার দরের চেয়ে অনেক বেশি ভাড়া দিয়ে থাকার বিধান আছে।

সেক্ষেত্রে, কেজরিওয়ালকে আনুষ্ঠানিকভাবে তা পিডব্লিউডিকে (পাবলিক ওয়ার্কস ডিপার্টমেন্ট) জানাতে হবে এবং প্রতিমাসের জন্য ৬৫ গুণ বেশি ভাড়া (২ লাখ ৫৮ হাজার রুপি) দিয়ে থাকতে হবে। নির্বাচিত হয়ে আবার ক্ষমতায় আসতে পারেন, তখন বিপদ হতে পারে, এই আশঙ্কায় কেজরিওয়ালকে বাসা ছাড়ার নোটিশও দেননি দেশটির পিডব্লিউডি’র কর্মকর্তারা।

অপরদিকে, বাসা ছাড়ার বিষয়ে কেজরিওয়ালের দিক থেকেও সংশ্লিষ্ট দপ্তরে কোনো যোগাযোগ করা হয়নি। নোটিশ না পেলেও যে আদর্শ প্রতিষ্ঠার জন্য কেজরিওয়াল সংগ্রাম করছেন সেই আদর্শের নীতি থেকেই সরকারি বাসাটি যথাসময়ে ছেড়ে দেয়া তার তার উচিত ছিল বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা। সম্প্রত্তি দিল্লি সাবেক মুখ্যমন্ত্রী শিলা দিক্ষিতকে সরকারি বাংলোতে অতিরিক্ত সময় থাকার জন্য ভাড়া হিসেবে ৩ লাখ ২৫ লাখ রুপি জমা দিতে বলেছে দিল্লি সরকার।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close