স্থানীয়

কিশোরগঞ্জ সোনালী ব্যাংকে সিকিউরিটি অ্যালার্ম: টিকটিকির কারণে তুলকালাম কাণ্ড

শীর্ষবিন্দু নিউজ: ছোট্ট একটি টিকটিকির কারণে তুলকালাম কাণ্ড ঘটে গেছে কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের রথখোলা এলাকায় সোনালী ব্যাংকের প্রধান শাখায়। যে শাখায় গত ২৬ জানুয়ারি সুড়ঙ্গ কেটে ১৬ কোটি ৪০ লাখ টাকা লুটের ঘটনায় দেশজুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছিল। শনিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে হঠাৎ করে বিকট শব্দে ব্যাংকের ওই শাখার ভল্টের সিকিউরিটি অ্যালার্ম বেজে ওঠে বলে জানা যায়।

রাতের নীরবতা ভেঙে অ্যালার্ম বাজার শব্দে হতচকিত হয়ে পড়েন ব্যাংকের নিরাপত্তায় থাকা পুলিশ সদস্যরা। অবিরাম অ্যালার্মের শব্দে কৌতুহলী হয়ে উঠে পথচারী ও আশপাশের মানুষ। খবর পেয়ে ছুটে আসেন বিভিন্ন গণমাধ্যমের কর্মীরা। দ্রুততার সঙ্গে খবর চলে যায় ঢাকায় ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে। কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ওসি আব্দুল মালেকের নেতৃত্বে একদল পুলিশও অবস্থান নেয় ব্যাংকের প্রধান ফটকের সামনে।

রাত সাড়ে ১১টার দিকে ব্যাংকে এসে পৌঁছান ভল্ট দেখার (কাস্টডিয়ান) দায়িত্বে থাকা দুই কর্মকর্তা ফজলুল হক ও তারিকুল ইসলাম। পুলিশের উপস্থিতিতে দুই কর্মকর্তা তালা খুলে ঢোকেন ভল্টে, শুরু হয় সিকিউরিটি অ্যালার্ম বাজার কারণ অনুসন্ধান। সোনালী ব্যাংকের এই শাখায় গত জানুয়ারিতে এভাবে সুড়ঙ্গ কেটে ১৬ কোটির বেশি টাকা লুট হয়। রাত ১২টার দিকে কর্মকর্তারা নিশ্চিত হন, কোনো চুরির ঘটনা নয়, একটি টিকটিকির কারণেই এই বিপত্তি।

সিকিউরিটি সিস্টেমের সামনে একটি নিরীহ দর্শন টিকটিকির অবস্থানের কারণেই অ্যালার্মের বিকট আওয়াজ। বিষয়টি নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে হাস্যরসের সৃষ্টি হলেও নতুন কোনো অঘটন না ঘটায় সবাই শেষ পর্যন্ত স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন। টিকটিকির কারণেই এ ঘটনা ঘটেছে। তবে নতুন করে কোনো অঘটন না ঘটায় সবাই স্বস্তিতে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close